Mountain View

প্রতিশোধ চায় অ্যাথলেটিকো

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১৯, ২০১৬ at ৭:৪৯ পূর্বাহ্ণ

20161119074435

রিয়াল মাদ্রিদের জন্য মূর্তিমান আতঙ্কই নগর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ। লা লীগায় গত তিন মৌসুমে ছয় ম্যাচের চারটিতেই জিতেছে দিয়েগো সিমিওনির দল। দুটি ম্যাচ ড্র। রিয়ালের কোনো জয়ই নেই। লীগের পরিসংখ্যান তাদের পক্ষে থাকলেও দুটি চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে হার অ্যাথলেটিকোকে এখনও তাড়িয়ে বেড়ায়। সে প্রতিশোধ আজ নিতে চান বলে জানিয়েছেন অ্যাথলেটিকো অধিনায়ক গ্যাবি। তবে এমন মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে চোটের কারণে বেশ কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়কে পাচ্ছে না রিয়াল। এ কারণে নিশ্চিতভাবেই কিছুটা হলেও স্বস্তিতে থাকবে অ্যাথলেটিকো শিবির। এর সঙ্গে একটি সুসংবাদও আছে তাদের জন্য। ইনজুরির শঙ্কায় থাকা অ্যান্টেনিও গ্রিজম্যান মাঠে নামার মতো ফিট হয়ে উঠেছেন। বাংলাদেশ সময় শনিবার রাত পৌনে ২টায় মুখোমুখি হবে দু’দল।
দু’দলের সর্বশেষ দেখা হয়েছিল চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে। সেখানে টাইব্রেকারে অ্যাথলেটিকোকে হারিয়ে ১১তম চ্যাম্পিয়ন্স লীগ শিরোপা জিতেছিল রিয়াল। মে মাসের সে ক্ষত এখনও তরতাজা দিয়েগো সিমিওনির দলের। লা লীগায়ও তারা ভালো অবস্থানে নেই। তবে এ ম্যাচটি জিতে প্রতিশোধের সঙ্গে লীগে নিজেদের অবস্থানটাও ভালো করতে চান অ্যাথলেটিকো অধিনায়ক গ্যাবি, ‘চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ওই হার কোনো দিন ভুলতে পারব না। তবে এ ম্যাচটা জিতে আমাদের সমর্থকদের জন্য কিছুটা হলেও আনন্দের উপলক্ষ এনে দিতে চাই।’ আরও একটি কারণে ম্যাচটি জিততে চায় অ্যাথলেটিকো। ক্যালদেরনে এটাই শেষ ডার্বি। ৫০ বছরের পুরনো ক্যালদেরন ছেড়ে আগামী মৌসুমে নতুন স্টেডিয়াম লা পিনেতায় যাবে অ্যাথলেটিকো।
পাহাড়সমান চাপ নিয়ে ভিসেন্তে ক্যালদেরনে যাচ্ছেন রিয়াল বস জিনেদিন জিদান। স্ট্রাইকার আলভারো মোরাতা ইনজুরিতে পড়েছেন। শুধু তিনিই নন, রিয়ালের ইনজুরি তালিকাটা বেশ লম্বা। জার্মান মিডফিল্ডার টনি ত্রুক্রস পা ভেঙে বসে আছেন। তাকেও পাওয়া যাবে না। অনেকটা অপারগ হয়েই পুরোপুরি ফিট না হওয়ার পরও লুকা মডরিচকে আজ নামতে হচ্ছে। হাঁটুর ইনজুরির থেকে উঠলেও এখনও ম্যাচ খেলার মতো ফিট হয়ে ওঠেননি রিয়ালের ক্রোয়াট মিডফিল্ডার; কিন্তু করার কিছু নেই। ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার ক্যাসেমিরোর পায়ের হাড়ে চোট থেকে সেরে উঠেছেন মাত্র ক’দিন হলো। অধিনায়ক সার্জিও রামেসও হাঁটুর চোটের কারণে সেপ্টেম্বর থেকে কোনো ম্যাচ খেলতে পারেননি। তাই বড় অসময়ে নগর প্রতিদ্বন্দ্বীদের মুখোমুখি হতে হচ্ছে রিয়ালকে। আরও একটি কারণে ডার্বির জন্য ঠিকঠাক প্রস্তুতিও নিতে পারেনি রিয়াল। কারণ তাদের প্রায় সব খেলোয়াড়ই জাতীয় দলের হয়ে খেলার জন্য দেশে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে তারা ফেরার পর দু-এক দিন অনুশীলন করেই মাঠে নামতে হচ্ছে তাদের।
অধিকাংশ ফুটবলার অভিজ্ঞ বলে হয়তো এটা বড় কোনো কারণ হয়ে দাঁড়াবে না। কিন্তু সার্জিও রামোস, লুকা মডরিচ, ক্যাসেমিরো মাত্র চোট থেকে উঠেছেন। দু-একটি মাত্র ম্যাচে কয়েক মিনিটের জন্য নামলেও মডরিচ এখনও পুরোপুরি ফিট নন। এত দুঃসংবাদের মাঝে জিদানের জন্য একটা সুখবর আছে। মাংসপেশির চোট কাটিয়ে ফিরেছেন স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা। চোটের কারণে আন্তর্জাতিক বিরতির আগে লেগানেসের বিপক্ষে ৩-০ গোলে জেতা ম্যাচে খেলতে পারেননি তিনি। বৃহস্পতিবার তিনি দলের সঙ্গে অনুশীলন করেছেন। তাই কিছুটা হলেও স্বস্তিতে আছেন জিদান। তবে তাদের প্রাণভোমরা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর ফর্ম খুব একটা ভালো যাচ্ছে না। বাছাই পর্বের ম্যাচে জোড়া গোল করলেও লীগে তেমন একটা দাপট দেখাতে পারছেন না পর্তুগিজ এ মহাতারকা। এর পরও তার দিকেই তাকিয়ে রিয়াল ভক্তরা।
অ্যাথলেটিকোর শিবির অবশ্য দারুণ উজ্জীবিত। তাদের শঙ্কা ছিল গ্রিজম্যানকে নিয়ে। গত শুক্রবার সুইডেনের বিপক্ষে ২-১ গোলে জেতা বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের ম্যাচে বাঁ পায়ে চোট পেয়েছিলেন ফরাসি এ তারকা। এজন্য আইভরি কোস্টের বিপক্ষে ফ্রান্সের হয়ে প্রীতি ম্যাচটি খেলতে পারেননি তিনি। মাদ্রিদ ডার্বিতেও তার খেলা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছিল; কিন্তু এক্স-রেতে দেখা গেছে, তার পায়ের হাড় ভাঙেনি। বৃহস্পতিবার তিনি দলের সঙ্গে অনুশীলনও করেছেন। অ্যাথলেটিকো ডিফেন্ডার হুয়ান ফ্রান জানিয়েছেন, রিয়ালের বিপক্ষে মাঠে নামতে নাকি প্রস্তুত গ্রিজম্যান।
লা লীগায় ১১ রাউন্ড শেষে ২৭ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে রিয়াল। ২ পয়েন্ট কম নিয়ে তাদের পরই বার্সেলোনা। তৃতীয় স্থানে থাকা ভিয়ারিয়ালের পয়েন্ট ২২। তাদের চেয়ে ১ পয়েন্ট কম নিয়ে অ্যাথলেটিকো আছে চতুর্থ স্থানে।

এ সম্পর্কিত আরও