Mountain View

জানুয়ারিতেই টেস্ট অভিষেক তাসকিনের?

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২১, ২০১৬ at ১২:৫৩ পূর্বাহ্ণ

image

নিউজিল্যান্ড সফরেই টেস্ট খেলতে পারেন তাসকিন আহমেদ। ওই সফরের জন্য তাঁকে তৈরি থাকার কথা বলা হয়েছে। সব ঠিক থাকলে আগামী জানুয়ারিতেই টেস্ট অভিষেক হতে পারে বাংলাদেশি এই পেস বোলারের।

এশিয়া কাপ টি-২০তে শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের মরা পিচে ঘণ্টায় প্রায় ১৪৬ কিলোমিটার গতিতে বল করেছেন তিনি। শেষ বিশ্বকাপে তাঁর বলের গতি ছিল প্রায় ১৪৮ কিলোমিটার। উইকেটে ঘাস থাকলে, বাউন্স পেলে গতি দিয়ে যে তিনি কাঁপিয়ে দিতে পারেন তা ক্যানবেরায় একটি ডেলিভারিতেই বুঝিয়ে দিয়েছিলেন তাসকিন। শুক্রবার চট্টগ্রামে ব্যাটিং ফ্রেন্ডলি উইকেটেও রাজশাহি কিংসকে সেই গতি দিয়েই কাঁপিয়ে দিয়েছেন এই পেস বোলার।

টি-২০ ক্রিকেট কেরিয়ারের ২৯তম ম্যাচে এসে প্রথম বার তাসকিন পেয়েছেন ৫ উইকেট। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল)-এ মহম্মদ শামি, কেভন কুপার, তিসারা পেরেরা, আল আমিন এবং আবুল হাসান রাজুর পরে ৫ উইকেটের ইনিংসে শুক্রবার নিজেকে চেনালেন তিনি। ব্যাটিং ফ্রেন্ডলি পিচে ৪-০-৩১-৫। এমন বোলিং-ছন্দে থাকা তাসকিন জীবনের বড় পুরস্কার পেতে যাচ্ছেন। কাকতালীয় ভাবে সাব্বির রহমান রুম্মানের সঙ্গে মিলে যাচ্ছে তাঁর আন্তর্জাতিক কেরিয়ার। টি-২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সিঁড়ি বেয়ে ধাপে ধাপে ওয়ানডে, টেস্ট অভিষেক হয়ে গিয়েছে সাব্বিরের। তাঁর মতোই পর্যায়ক্রমে টি-২০, ওয়ানডে হয়ে টেস্ট অভিষেকের সবুজ সংকেত নির্বাচকদের পক্ষ থেকে পেয়ে গিয়েছেন তাসকিন। সাব্বিরের ৩ মাস পর টি-২০ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট দিয়ে জাতীয় দলে অভিষিক্ত পেস বোলার তাসকিনকেও টেস্ট অভিষেকের জন্য প্রতীক্ষা করতে হচ্ছে সেই ২০ মাস। আগামী জানুয়ারিতে নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্ট খেলার সুযোগ পেলেই সবটা মিলে যাবে।

তাসকিনকে নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্ট খেলার প্রস্তুতি নিতে বলা হয়েছে। এমনটাই জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তিনি বলেন, ‘‘জানুয়ারিতেই নিউজিল্যান্ডে টেস্ট খেলতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। সেখানে তখন বেশ ঠান্ডা। উইকেট পেস বোলারদের জন্য তৈরি করা হবে। তাই তাসকিনকে টেস্ট খেলার জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছি।’’ কাজেই বিপিএল শেষ হওয়ার পর পরই সিডনির বিমান ধরতে হবে তাসকিনকে।

নিউজিল্যান্ড সফরে বাংলাদেশ দল অনুশীলন ম্যাচ পাচ্ছে না। সিডনিতে ১০ দিনের কন্ডিশনিং ক্যাম্প হবে বাংলাদেশ দলের। সেখানেও দীর্ঘ পরিসরের কোনও অনুশীলন ম্যাচ বরাদ্দ নেই। তবে, সিডনির ওই কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ২টি ৫০ ওভারের ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে তারা। ওই ম্যাচ দু’টিতেই নিজেকে টেস্টের জন্য প্রস্তুত করে তুলতে পারবেন তাসকিন। প্রধান নির্বাচকের কথায়, ‘‘কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ২টি অনুশীলন ম্যাচ পাবেন তাসকিন। তিনি যদি ফিট থাকে, তা হলে নিউজিল্যান্ড সফরে টেস্ট খেলার সুযোগ আছে।’’ সব যদি ঠিক থাকে, তবে রঙিন জার্সির তাসকিনকে এ বার দেখা যাবে সাদা জার্সিতে।

এ সম্পর্কিত আরও