Mountain View

মেরে ফেলা হতে পারে মমতা ব্যানার্জীকে!

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২১, ২০১৬ at ৭:২০ অপরাহ্ণ

95798e2e0fcc01b1fb1916aa4ff14f35x800x481x38আন্তর্জাতিক ডেস্ক : সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে চান তিনি। আর তাই নাকি তাকে থামাতে নানাভাবে আক্রমণের কৌশল নিয়েছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। সোমবার তার কার্যলয়ে সাংবাদিক সম্মেলনে এই অভিযোগ করেছেন মমতা ব্যানার্জী।

তার অভিযোগ, এটা গণতান্ত্রিক দেশ। কিন্তু, যেভাবে নরেন্দ্র মোদি এককভাবে নোটবাতিলের সিদ্ধান্ত নিয়ে আজ দেশবাসীকে না খেতে পেয়ে মারবার জায়গায় নিয়ে গিয়েছেন তাকে কোনওভাবেই সমর্থন করা যায় না। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরদের সঙ্গে আলোচনা না করেই তিনি কী ভাবে এত বড় একটা সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন?

এই নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন মমতা। তার আরও অভিযোগ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার গুটিকতক সদস্য ছাড়া সিদ্ধান্ত ঘোষণার আগে কাউকেই কিছু জানান মোদি। ভারতের

প্রধানমন্ত্রীর এই সিদ্ধান্তকে কার্যত চ্যালেঞ্জই করেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী।

মমতা সাংবাদিক সম্মেলনের মধ্যেই অভিযোগ করেছেন কেন্দ্র-রাজ্য সম্পর্ককে যেভাবে পিষে মেরে ফেলা হচ্ছে, তার বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছেন তিনি। অতীতেও ইউপিএ শাসনের আমলে রাজ্যের অধিকারকে খাটো করে ফেলার প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিলেন বলে মন্তব্য করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। এনডিএ আমলেও সেই প্রক্রিয়ায় আরও জোর আনা হয়েছে।

মমতার অভিযোগ, জিএসটি নিয়ে রাজ্যসভায় মোদি সরকারকে সমর্থন দিয়েছিল তৃণমূল। কিন্তু, তারপরও মোদি সরকার রাজ্যগুলিকে আস্থায় নেওয়ার বদলে তাদের অধিকার খর্ব করার চেষ্টা চালাচ্ছে। যুক্তরাজ্য পরিকাঠামোয় কেন্দ্র-রাজ্য সম্পর্ককে আরও মসৃণ হতে হবে বলে মনে করেন মমতা। সেখানে রাজস্ব আদায় থেকে নানা ক্ষেত্রে রাজ্যের অধিকারে অনধিকার চর্চা করছে কেন্দ্র। মমতা ব্যানার্জীর আশঙ্কা, যেভাবে প্রতিবাদে তিনি সরব হয়েছেন তাতে তার প্রাণও যেতে পারে। তাকে মেরে ফেলতে পারে নরেন্দ্র মোদি সরকার।

নোট বাতিলকাণ্ডে মমতা ব্যানার্জী দিল্লি যাওয়ার পরই চিটফাণ্ড ইস্যুতে আক্রমণ তীব্র করেছে বিজেপি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি থেকে বিজেপি-র সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ পর্যন্ত মমতার নাম করে আক্রমণ শানাচ্ছেন। মমতার মতে, যেভাবে কেন্দ্রীয় সরকারের একটা ভুল সিদ্ধান্তকে রাজনীতির আঙিনায় টেনে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা অত্যন্ত নিন্দনীয়।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View