ঢাকা : ২৭ মার্চ, ২০১৭, সোমবার, ১০:২৪ অপরাহ্ণ
সর্বশেষ
আতিয়া মহলের নিচতলায় ৪টি লাশ হারের বদলা নিতে শ্রীলঙ্কা দলে যুক্ত বাড়তি দুই পেসার, পাল্টে ফেলেছে উইকেটের চিত্রও অভিনেতা মিজু আহমেদ মারা গেছেন মোটরসাইকেলে দুজনের বেশি ওঠলে ৩ মাসের কারাদণ্ড দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচের জন্য টাইগারদের শক্তিশালী একাদশ প্রকাশ আবারও আলোচনার টেবিলে মারুফ, সুখবরের আভাস শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচ আগামীকাল, যা বললেন মাশরাফি স্বপ্নের ফাইনালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিপক্ষ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শততম টেষ্টের জয় নিয়ে প্রশ্ন তোলায় আইসিসিকে ধিক্কার জানালো বিসিএসএফ ভারতে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় মুসলিম হত্যা ও ঘর-বাড়িতে আগুন
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

যে কারণে রাশিয়াতে ট্রাম্প জনপ্রিয়

tmpsnapshot1479656266105আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সদ্য নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনী প্রচারণা পর্ব থেকেই বিভিন্নভাবে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের জয়গান করে আসছিলেন। নির্বাচনকালীন সময়েও রুশ গণমাধ্যমগুলো অপ্রত্যাশিতভাবে ট্রাম্পের পাশে থেকেছে। এমনকী ট্রাম্পের জয়ে রুশ জনগোষ্ঠী কোসাকরা ব্যাপক খুশি। 
 
কারণ এই জাতিগোষ্ঠীর কাছে ট্রাম্প বেশ জনপ্রিয়। তবে শুধু এই ক্ষুদ্র জাতিগোষ্ঠী নয়, রাশিয়াজুড়েই চলছে ট্রাম্পের গুণগান। কোসাকরা পরিচিত সাহসী যোদ্ধা হিসেবে এবং পশ্চিমাদের প্রতি তাদের দৃষ্টিভঙ্গি সন্দেহপ্রবণ। তবে একজন পশ্চিমাকে তারা এখন ব্যতিক্রমী দৃষ্টিতে দেখছে, আর ওই একজনই হলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। 
 
কাসিমোভার কোসাকরা ট্রাম্পকে সম্মানসূচক ‘কোসাক’ হিসেবে ঘোষণা করে তাকে সেখানে সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছে। কোসাক গোত্র প্রধান আন্দ্রে পালিক বলেন, ‘ট্রাম্প অন্য মার্কিন প্রেসিডেন্টদের মতো নয়। তিনি রাশিয়ার সাথে ভালো সম্পর্ক চান। তিনি ন্যাটোকে অর্থ-সাহায্য দিতে চান না এবং তার একজন সুন্দরী স্লাভিক স্ত্রীও আছে।’ রুশ টেলিভিশনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সেখানের এক কৃষক তার ইয়াক শাবকের নাম দিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। কারণ শাবকটি বেশ অবাধ্য প্রকৃতির। রুশ শিল্পীরা ডোনাল্ড ট্রাম্পের ছবি আঁকছে, রুশ রাজনীতিবিদরা তাকে অনুকরণ করছে এবং মস্কোতে এখন সোনার প্রলেপ দেয়া স্মার্টফোন পাওয়া যাচ্ছে। 
 
যার কভারে ট্রাম্পের মুখাবয়ব বসানো। রুশ সিনেটর অ্যালেক্সি পুশকভ বলেন, ‘ট্রাম্প ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে দেখা করা এবং একটি সমঝোতায় আসার ব্যাপারে আগ্রহ দেখিয়েছেন। আমার মনে হয় না যুক্তরাষ্ট্র থেকে আমরা ভালোবাসা কিংবা উপহার আশা করতে পারি। তবে আমরা আশা করতে পারি যে, আমাদের অভিন্ন স্বার্থের বিষয়ে কিছু সমঝোতায় আসতে পারবো।’ রাশিয়ার অনেক জনগণ মনে করেন, ট্রাম্প রাশিয়ার বিরুদ্ধে আরোপিত অবরোধ তুলে নেবেন এবং বাস্তবতাকে সামনে রেখে একজোট হবেন। অনেকের কাছে ট্রাম্পের প্রতি আকর্ষণের মূল কারণ হচ্ছে, তার বিশ্বায়নবিরোধী এবং রাজনৈতিক শুদ্ধিবিরোধী মনোভাব। 
 
রুশ রাষ্ট্রবিজ্ঞানী আলেক্সেন্ডার ডুগেট বলেন, ‘ট্রাম্পের আমেরিকাই হচ্ছে সেই আমেরিকা, যাকে আমি গ্রহণ করি, যাকে আমি সম্মান করি এবং যাকে সম্ভবত আমি প্রশংসাও করবো। এই আমেরিকা বিশ্বায়ন এবং উদারনীতির বিপক্ষে। উইড্রো উইলসন থেকে হিলারি ক্লিনটন পর্যন্ত ছিল অন্য আমেরিকা। সেই আমেরিকা বিশ্বে ব্রিটিশ সাম্রাজ্যের মতো ভূমিকা রাখতে চেয়েছিল। কিন্তু এখন ট্রাম্পের আমেরিকা সম্ভবত পুতিনের রাশিয়ার সবচেয়ে বড় মিত্র হতে যাচ্ছে।’ কোসাকরা মনে করছে, ট্রাম্পের নেতৃত্বে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে শীতল সম্পর্কের অবসান হচ্ছে এবং বিশ্বে ক্ষমতার ভারসাম্য পরিবর্তন হচ্ছে। যেই নতুন বিশ্বব্যবস্থার পুরোভাগে থাকবে রাশিয়া।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

ভারতে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গায় মুসলিম হত্যা ও ঘর-বাড়িতে আগুন

ভারতের বিজেপি-শাসিত ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নিজ রাজ্য গুজরাটে আবারো মুসলিমবিরোধী দাঙ্গা হয়েছে।  রাজ্যের পাটনা …