ঢাকা : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ১২:১০ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারকে নিয়ে মিথ্যা প্রচারে ফেসবুকে ভাইরাল

গতকাল সকালে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলাস্থ পারকী সমুদ্র সৈকতে এক খ্যাতনামা বিজ্ঞাপনী সংস্থার শুটিং করতে আসেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান।15109482_584074211792308_2093586789414163362_n

যেখানে বলা হয়েছে শুটিং চলাকালে ভক্তরা ছবি তুলতে চাইলে সাকিব নিজ হাতে পর পর কয়েকটি মোবাইল কেড়ে নিয়ে পানিতে ফেলে দেয় যা একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়ের কাছে সত্যি বেমানান। এমন খবরই ফেসবুকে ভাইরাল হয়ে সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে। পরে অনুসন্ধান করে জানা যায় খবরটি ফেক। এবং এটির সূত্রপাত হয়েছে ভারত থেকেই। সাকিব আল  হাসানকে হেয় করতেই ফেসবুকে এমন অপপ্রচার চালিয়েছে একটি চক্র।

অথচ বাংলাদেশের কোন নিউজ মিডিয়াতে এমন খবর আসেনি। যার অর্থ এটা কেবলই ফেসবুকে অপপ্রচার ছাড়া আর কিছু নয়।

পূর্বে বেশকিছু বিতর্কিত ঘটনার জন্ম দিলেও বিয়ে করার পর বিশেষ করে বাবাব হওয়ার পর নিজেকে অনেক বদলে নিয়েছেন বাংলাদেশের জান বাংলাদেশের প্রাণ সাকিব আল হাসান।

সোর্স : ফেসবুকে এডাল্ট’স ডিন গ্রুপে এমন একটি অভিযোগ করা হয়েছে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের বিরুদ্ধে । তবে বিষয়টির সত্যতা এখনও জানা যায়নি।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

মৃত্যুর পর জয়ললিতার মুখে চারটি ছিদ্র!

ভারতের রাজাজি হলে দীর্ঘক্ষণ শায়িত তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার বাম গালে চারটি বিন্দু দেখা গিয়েছিল। সেগুলো …

Mountain View

৬ মন্তব্য

  1. একজন খ্যাতিমান মানুষ হওয়ার আগে একজন ভালো মানুষ হওয়া বেশি জরুরী। একজন খারাপ মানুষের পক্ষে বড় হওয়া খুবই কষ্টসাধ্য ব্যাপার। সে হয়ত জীবনে বড় হয়েছে কিন্তু তার এই খ্যাতি আল্লাহ যেকোন সময় কেড়ে নিতে পারে। তাই তার উচিৎ একজন ভালো মানুষে পরিনত হওয়া।

  2. সাকিব আল হাসান আগে থেকেই বেয়াদব। এটা মুখ খুলে বলতে পারি না। কারন অনেকে সাকিব আল হাসানের ভক্ত কিন্তু আমি বলি এই বেয়াদব থেকে ভাল হয়ে যায়।

  3. “দোষ সাকিবের নয়,দোষটা আমাদেরই,,,বর্তমানে সেলফি রোগটা মানুষের মধ্যে কেমন ভাবে ছড়িয়েছে, সেইটা আর নতুন করে বলার নেই।।একটা টুর্নামেন্ট চলাকালীন সময়ে,সময় বের করে শুটিং করতে যাওয়া চাট্টি খানি কথা না!!!তার ওপর আবার এতোগুলো দর্শক,তাকে নিয়ে সেলফি তুলতে ব্যাস্ত,,,,,আর এত ভিড়ের মধ্যে সবাইকে তো আর একেক করে,সেলফি তোলার সময়, দেওয়ার মত সময় অবশ্যই সাকিবের কাছে নেই।।আর সেখানকার দর্শকগুলো সেলফি তোলা নিয়ে অতিরিক্ত বারাবারি শুরু করেছিল।।যা ধৈর্য্যের বাইরে।।আর তখন সাকিবের এমন আচরনটা আমি স্বাভাবিক’ই মনে করি।। চিন্তা,করুন হাজারো মানুষের ভিড়ে একজন,সব জনকে তো আর সময় দেওয়া সম্ভব নয়।।আর তখন সাকিবের রাগ আসাটা স্বাভাবিক।। দূর্ভাগ্য বশত,সেখানে চট্টগ্রামের কিছু লোকাল নিউজ পত্রিকার কিছু বেয়াদব সাংবাদিক ছিলো,আর পত্রিকাকে আর জনপ্রিয় করার জন্যে ওল্টা -পাল্টা কিছু নিউজ করছে।আর সেইগুলো নিয়েই,আমরা লাফালাফি করতেছি!!!!!

    • বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের বিশ্ব বেহায়া কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি
      ,
      শুক্রবার সকালে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলাস্থ পারকী সমুদ্র সৈকতে এক খ্যাতনামা বিজ্ঞাপনী সংস্থার শুটিং করতে আসেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। শুটিং চলাকালে ভক্তরা ছবি তুলতে চাইলে সাকিব নিজ হাতে পর পর কয়েকটি মোবাইল কেড়ে নিয়ে পানিতে ফেলে দেয় যা একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়ের কাছে সত্যি বেমানান।সাকিব হয়তো ভুলে গেছেন এদেশের সাধারন খেটে খাওয়া মানুষের রক্ত পানি করা টাকায় আজ আপনি বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার।আজ গ্রামের সহজ সরল যে মানুষগুলো আপনাকে ভালোবাসা দেখাতে গিয়েছিল তাদের ভালোবাসা নেওয়ার যোগ্য হয়তো আপনি ছিলেননা। তাই তাদের সাথে এমন রাস্তার ছেলের মত আচরন করতে আপনার বিবেকে বাধেনি।হয়তো জীবনে আরো অনেক বড় হতে পারবেন।কিন্তু মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ হওয়া খুব বেশি জরুরী।যা জাতির জন্য খুব বেশি দরকার। #দৈনিক_আজাদী তে উক্ত ঘটনা রিপোর্ট করা হয়েছে,, যারা বিশ্বাস করেন নি
      তারা দয়া করে পত্রিকা টি দেখুন।

  4. বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের বিশ্ব বেহায়া কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি
    ,
    শুক্রবার সকালে চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলাস্থ পারকী সমুদ্র সৈকতে এক খ্যাতনামা বিজ্ঞাপনী সংস্থার শুটিং করতে আসেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। শুটিং চলাকালে ভক্তরা ছবি তুলতে চাইলে সাকিব নিজ হাতে পর পর কয়েকটি মোবাইল কেড়ে নিয়ে পানিতে ফেলে দেয় যা একজন বিশ্বমানের খেলোয়াড়ের কাছে সত্যি বেমানান।সাকিব হয়তো ভুলে গেছেন এদেশের সাধারন খেটে খাওয়া মানুষের রক্ত পানি করা টাকায় আজ আপনি বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার।আজ গ্রামের সহজ সরল যে মানুষগুলো আপনাকে ভালোবাসা দেখাতে গিয়েছিল তাদের ভালোবাসা নেওয়ার যোগ্য হয়তো আপনি ছিলেননা। তাই তাদের সাথে এমন রাস্তার ছেলের মত আচরন করতে আপনার বিবেকে বাধেনি।হয়তো জীবনে আরো অনেক বড় হতে পারবেন।কিন্তু মানবিক মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ হওয়া খুব বেশি জরুরী।যা জাতির জন্য খুব বেশি দরকার। #দৈনিক_আজাদী তে উক্ত ঘটনা রিপোর্ট করা হয়েছে,, যারা বিশ্বাস করেন নি

  5. সত্যিকার ভাবে সত্যি ঘটনা জাতি জানতে চায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *