ভালোবাসার ক্রিকেট যেন মৃত্যুর কারণ না হয়

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২২, ২০১৬ at ৪:৩৯ অপরাহ্ণ

জুবায়ের আহমেদ, ঘটনা এক-চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় ব্যাটের আঘাতে সাইফুল ইসলাম নামের এক স্কুল ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। সাইফুল নবম শ্রেণীর ছাত্র ছিল। গত ০৯/০৫/১৬ইং তারিখ লোহাগাড়ার ছুটার পাড়া এলাকায় সাইফুল ক্রিকেট খেলার সময় প্রতিপ শওকত এর ব্যাটের আঘাতে মারাত্মক ভাবে আহত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১১/০৫/১৬ইং তারিখে মৃত্যুবরণ করেন।15207927_1730144750640394_1477609948_n

ঘটনা দুই-গত ১১/০৫/১৬ইং তারিখ সকালে ঢাকার মিরপুর-১ ধানতে মোড়ে একটি ফাঁকা জায়গায় স্থানীয়দের সঙ্গে ক্রিকেট খেলছিল বাবুল শিকদার হৃদয়। ক্রিকেট খেলায় আউট হওয়া নিয়ে সংঘর্ষ শুরু হলে একপর্যায়ে বন্ধু বিধানের ষ্ট্যাম্পের আঘাতে মৃত্যু হয়েছে তার। দুপুরেই হৃদয়ের এসএসসির রেজাল্ট প্রকাশ হয়েছে। এ প্লাস পেয়েছে হৃদয়।

এর চেয়ে মর্মান্তিক আর কি হতে পারে। এ দুটি ঘটনা সাম্প্রতিক সময়ে ঘটেছে। কিন্তু প্রায়শই বিভিন্ন পত্রিকা ও পরিচিতজনদের কাছ থেকে ক্রিকেট খেলায় বিরোধের জেরে মৃত্যুর সংবাদ শুনতে পাই যা কখনোই কাম্য নয়। ক্রিকেট আমাদের প্রাণের খেলা, ভালোবাসার খেলা। এই ক্রিকেটকে ঘিরেই আমরা সমগ্র জাতি একত্রিত হই।

ভুলে যাই হানাহানি, ভুলে যাই পূর্বশত্র“তা, সকলে এককাতারে এসে ক্রিকেট উপভোগ করি। এই ক্রিকেটের মাধ্যমেই যখন অনাকাঙ্খিত মৃত্যু হয়, তখন এটা কোন ভাবেই মেনে নেওয়া সম্ভব হয় না। পাড়া মহল্লার খেলাগুলো কোন নিয়মের মাধ্যমে পরিচালিত হয় না অর্থাৎ ক্রিকেটের নিয়মে ক্রিকেট চললেও খেলাগুলোকে নিয়ন্ত্রনের জন্য কোন অভিভাবক থাকে না যে মাঠের ছোটখাট বিরোধ সমাধান করে দেবে, আম্পায়ারও থাকে দুই দলের মধ্য থেকেই।

তাই খেলার মাঝে কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে তকবিতর্ক হওয়াটাই স্বাভাবিক। কিন্তু এই তর্কবিতর্ককে ব্যক্তিগত ভাবে নিয়ে মারামারিতে লিপ্ত হওয়া কাম্য নয়। বর্তমানে ক্রীড়ার মধ্যে ক্রিকেটই পরিচিত ও অপরিচিত সকলের মধ্যে ভ্রাতৃত্বের বন্ধন সৃষ্টি করে। প্রকৃত ক্রীড়াপ্রেমীরা কখনোই মনমানসিকতায় খারাপ হতে পারে না।

তাই ক্রিকেট মাঠের মুহুর্তের উত্তেজনা নিয়ন্ত্রণ করার কোন বিকল্প নেই। ক্রিকেট বিনোদনের একটি অন্যতম মাধ্যম। এই ক্রিকেটের কারনে কিছুদিন পরপরই অনেক তাজা প্রাণ ঝড়ে যাচ্ছে। তার অধিকাংশই মাঠের খেলা ও ক্রিকেট জুয়া নিয়ে। মৃত্যু হচ্ছে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের। মৃত্যু হচ্ছে অনেক সম্ভাবনার। তাই আসুন, আমরা সকল ক্রিকেটপ্রেমীরা অঙ্গীকার করি-ক্রিকেট নিয়ে আর কোন বিরোধ নয়, আর কোন মৃত্যু নয়। ক্রিকেটের মাধ্যমেই মজবুত করবো ভ্রাতৃত্বের বন্ধন।

এ সম্পর্কিত আরও

no posts found