Mountain View

মহেশপুরে মাদক সম্রাট ও সন্ত্রাসী বাহিনীর হোতা স্বপন আবারও আটক

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২২, ২০১৬ at ৪:১১ অপরাহ্ণ

s2মহেশপুর প্রতিনিধি :উপজেলার মাদক সম্রাট ও সন্ত্রাসী বাহিনীর গড ফাদার ও নারী নির্যাতন মামলার আসামী স্বপন আবারও পুলিশের খাঁচায় বন্দি।
মহেশপুর থানা ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, মান্দারবাড়িয়া গ্রামের মৃত আরশাদ আলীর ছেলে স্বপন হোসেন (৪০) একই গ্রামের এক গৃহবধূকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও পর্ণোগ্রাফী ঘটনা ঘটালে তার বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ নারী নির্যাতন দমন ও পর্ণোগ্রাফী ট্রাইব্যুনালে পর্ণোগ্রাফী নিয়ন্ত্রণ আইন ২০১২এর ৮এর(১)(২)(৩) ধারা মোতাবেক একটি মামলা হয়।

যার নং-১৩/১৬। ঐ মামলায় তার গ্রেফতারী পরোয়ানা জারি হলে সে ডিবি পুলিশের হাতে আটক হয়। এতে প্রায় ৩ মাস হাজতে থাকার পর আদালত থেকে জামিনে এসে এলাকায় অবস্থান করছিল। গত ২১ নভেম্বর’২০১৬ দিবাগত রাত্রে উক্ত স্বপন তার দলবল নিয়ে ভিকটিমের পরিবারের উপরে হামলা করে। এতে তাসলিমা খাতুন, আনোয়ার হোসেন, মশিয়ার রহমান সর্ব পিতা ফজলুর রহমান আহত হয়। এদেরকে চৌগাছা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খবর পেয়ে মহেশপুর থানার এস,আই হাফিজুর রহমান সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থল থেকে স্বপনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। দুপুর দেড়টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাদীপক্ষ থানায় অবস্থান করছিল। এস,আই হাফিজুর রহমান জানায়, মামলার প্রস্তুতি চলছে স্বপন থানায় আটক আছে। এদিকে একটি প্রভাবশালী মহল স্বপনকে থানা থেকে মুক্ত করবার জন্য জোর তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে। উল্লেখ্য উক্ত স্বপন দীর্ঘদিন ধরে যশোর ঝিনাইদহের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে মাদক সহ অন্যান্য পণ্য চোরাকারবারী করে বলে অভিযোগ রয়েছে। সে যখন যে সরকার ক্ষমতায় আসে তখন সেই দলের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে তার কার্যক্রম অবাধে চালিয়ে থাকে।

ইতিমধ্যে অনেক অর্থ-সম্পদের মালিক হওয়ায় উপর মহলের বিভিন্ন চ্যানেল মেইনটেইন করে চলে। এলাকার কোন মানুষ তার ভয়ে তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পায় না। এলাকাবাসী তার হাত থেকে বাঁচার জন্য সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View