Mountain View

অভিজ্ঞতা অর্জনে ৪টি দেশ সফরে যাচ্ছে প্রতিনিধি দল

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৩, ২০১৬ at ৭:৪০ অপরাহ্ণ

564নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির দুইটি প্রতিনিধি দল আগামী মাসে ৪টি দেশ সফরে যাচ্ছে। সংসদীয় কমিটির সুপারিশের আলোকে দেশের বন্দরগুলোকে আধুনিকায়ন করতে বিদেশি বন্দর থেকে অভিজ্ঞতা নিতে এই সফরের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। মোট ১৭ সদস্যের প্রতিনিধি দলে সংসদীয় কমিটির সদস্যরা ছাড়াও মন্ত্রণালয় ও চট্টগ্রাম বন্দরের প্রতিনিধি থাকছে। আজ বুধবার জাতীয় সংসদ ভবনে সংসদীয় কমিটির বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কমিটি সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, বীর উত্তম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের দেওয়া প্রতিবেদন নিয়ে আলোচনা শেষে চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দরের উন্নয়ন কার্যক্রম ত্বরান্বিত করতে উন্নয়ন প্রকল্পগুলো গ্রুপ আকারে তৈরির সুপারিশ করা হয়। এ ছাড়াও চলমান উন্নয়ন প্রকল্পগুলো যথাসময়ে বাস্তবায়নের তাগিদ দেওয়া হয়।

কমিটি সূত্র জানায়, বাংলাদেশের বন্দর সমূহকে আধুনিক ও বিশ্বমানের বন্দরে উন্নীত করার লক্ষ্যে অভিজ্ঞতা অর্জনে সংসদীয় কমিটির সদস্যরা দুইটি ভাগ হয়ে বিদেশের কিছু গুরুত্বপূর্ণ বন্দর দেখতে যাবেন। বৈঠকের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কমিটির সদস্যরা তাদের পরিবারের সদস্যদের নিজ খরচে সফরসঙ্গী করতে পারবেন। তবে সে বিষয়ে আগেই সভাপতির অনুমোদন নিতে হবে।

সূত্র আরো জানায়, ডিসেম্বরের শুরুতে ভিয়েতনাম ও ইন্দোনেশিয়া সফরে যাবেন নৌ পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান, সংসদ সদস্য তালুকদার আব্দুল খালেক, রণজিৎ কুমার রায়, মো. হাবিবর রহমান ও মমতাজ বেগম এবং চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম খালেদ ইকবাল, মন্ত্রীর একান্ত সচিব তরীকুল ইসলাম, সংসদীয় কমিটির সচিব কল্লোল কুমার চক্রবর্তী ও মন্ত্রণালয়ের উপ সচিব মো. আব্দুস সাত্তার। ডিসেম্বরের শেষে দক্ষিণ কোরিয়া ও ফিলিপাইন সফরে যাবেন সংসদীয় কমিটির সভাপতি মেজর (অব.) রফিকুল ইসলাম, কমিটির সদস্য মো. আব্দুল হাই, নূরুল ইসলাম সুজন, এম. আব্দুল লতিফ ও আনোয়ারুল আজীম (আনার), সভাপতির একান্ত সচিব ড. দয়াল চাঁন মন্ডল, এবং মন্ত্রণালয় চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের একজন করে প্রতিনিধি।

এদিকে বৈঠকে চট্টগ্রাম ও মংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের কার্যক্রম নিয়ে আলোচনাকালে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়, মংলা বন্দর হতে রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র পর্যন্ত ক্যাপিটাল ড্রেজিং প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া ফ্রেন্ডশীপ পাওয়ার কম্পানি লিমিটেড কর্তৃক বছরে প্রায় ৪৫ লক্ষ মেট্রিক টন কয়লা নির্বিঘ্নে পরিবহন করা সম্ভব হবে।

আরো জানানো হয়, চট্টগ্রামে পতেঙ্গা টার্মিনাল নির্মিত হলে ৭৫০ মিটার জেটির এবং লালদিয়া টার্মিনাল নির্মিত হলে ৮২০ মিটার জেটির চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হবে।

এ সম্পর্কিত আরও