মাটি ফেটে বের হলো অলৌকিক হাত!

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৩, ২০১৬ at ৮:২৬ অপরাহ্ণ

ffaeff17d950bf5bab092accc6f7dc98x600x400x36ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ভূটিয়ারকোনা গ্রামের কৃষক আবদুর রশিদের বাড়ির সামনে মাটি ফেটে বের হয়েছে অলৌকিক হাত! লালচে রঙের অসংখ্য হাত সাদৃশ বস্তুতে রয়েছে সাদা রঙের নখ বিশিষ্ট আঙ্গুল!

বুধবার সেখানে গিয়ে দেখা যায়, এ অলৌকিক হাত দেখতে মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে দর্শনার্থীদের সংখ্যা।

ভূটিয়ারকোনা গ্রামের মৃত আরব আলীর ছেলে আবদুর রশিদ জানান, ৫-৬দিন আগে বাড়ির সামনে বাঁশঝাড়ের নিচে এই অলৌকিক হাত দেখতে পান। হাতগুলো আস্তে আস্তে বড় হচ্ছে।

ঘটনাটি এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। প্রতিদিনই মানুষের ভিড় বাড়ছে। বুধবার দর্শনাথীদের সুবিধার্থে চারদিকে বাঁশ, ছাঁটাই ও সুতা দিয়ে বেড়া নির্মাণ করে দেয়া হয়েছে।

এই হাতগুলোকে ঘিরে উৎসুক লোকজন বিশেষ করে মহিলারা বিভিন্ন নিয়তে মানত করছেন। তারা আগরবাতি-মোমবাতি জ্বালাচ্ছেন। পবিত্রতা রক্ষার জন্য সবাই জুতা খুলে ভিতরে সেখানে যাচ্ছেন।

চারদিকে লাল নিশান উড়িয়ে লাল সালু কাপড়ে ইট দিয়ে তৈরি করা হয়েছে আসন। সেই আসনে এখন জ্বলছে মোমবাতি আর আগরবাতি। দর্শনার্থী ও পথচারীরা ইতোমধ্যে দান-খয়রাতও শুরু করে দিয়েছেন।

আবদুর রশিদ জানান, ‘আবদুল মতির ছেলে মনির উদ্দিন (২৫) জ্বিন সাধক। তাই এখানে জ্বিন ও ভূতের আগমণ ঘটে। মনির উদ্দিনই পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন করে এখানে মাজার সৃষ্টি করেছেন। আমি শুধু খাদেম।’

অলৌকিক হাত দেখতে আসা কিল্লাতাজপুর গ্রামের জায়দুল্লাহ, নহাটা গ্রামের লাল মিয়া এবং নয়ানগর গ্রামের মজিবুর রহমান বলেন, হাত বেরিয়েছে খবর পেয়ে তারা দূর থেকে দেখতে এসেছেন।

ভূটিয়ারকোনা গ্রামের শিক্ষিত যুবক মঞ্জুরুল হক বলেন, মাটি থেকে একটি ছত্রাক জাতীয় জিনিস বেরিয়েছে। কিছু মানুষের অজ্ঞতার কারণে এ নিয়ে এতো কৌতুহল। ছত্রাক হলো- এককোষী বা বহুকোষী সুকেন্দ্রিক জীব। এ জীব সালোক সংশ্লেষনের মাধ্যমে শর্করা তৈরি করতে পারে না। এদের দৃঢ় কোষ প্রাচীর আছে।

এ সম্পর্কিত আরও