Mountain View

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৯ কোটি টাকা বেশি রাজস্ব সংগ্রহ করেছে হিলি বন্দর

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৪, ২০১৬ at ২:৫৮ অপরাহ্ণ

received_597566993777462

মোঃ আরিফ জাওয়াদ, দিনাজপুর:- দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম দিনাজপুর হিলি স্থলবন্দর থেকে চলতি ২০১৬-১৭ অর্থবছরের প্রথম চার মাসে (জুলাই-অক্টোবর) লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৯ কোটি ৩০ লাখ ২৮ হাজার টাকা বেশি রাজস্ব সংগ্রহ করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

হিলি স্থলবন্দর শুল্কস্টেশন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত দুই অর্থবছরে হিলি স্থলবন্দর থেকে লক্ষ্যমাত্রা অর্জিত না হওয়ায় চলতি অর্থবছরে রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয় ৪৯ কোটি ৫০ লাখ টাকা। সে হিসেবে গত চার মাসে নির্ধারিত ১৫ কোটি ২০ লাখ টাকার বিপরীতে রাজস্ব সংগ্রহ হয়েছে ৩৪ কোটি ৫০ লাখ ২৮ হাজার টাকা। যার মধ্যে, জুলাই মাসে ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকা লক্ষ্যমাত্রার বিপরীতে রাহম্ক সংগ্রহ হয়েছে ৫ কোটি ৮৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা, আগস্টে ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকার বিপরীতে সংগৃহীত হয়েছে ৭ কোটি ৭৬ লাখ ৩৬ হাজার টাকা, সেপ্টেম্বরে ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকার বিপরীতে সংগৃহীত হয়েছে ৯ কোটি ৭ লাখ ৯২ হাজার টাকা এবং অক্টোবরে ৩ কোটি ৮০ লাখ টাকার বিপরীতে সংগৃহীত হয়েছে ১১ কোটি ৮২লাখ ২৫ হাজার টাকা।

এ ব্যাপারে হিলি স্থলবন্দর আমদানি রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি মোঃ হারুন উর রশীদ হারুন বলেন, ‘হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে বেশীরভাগ খাদ্যদ্রব্য পেঁয়াজ, চাল, গম, ভুট্টা, খৈল, ভুষি, কাঁচামরিচ এজাতীয় পণ্য আমদানি হয়। এর মধ্যে দেশের চাহিদার শতকরা ৮০ শতাংশ পেঁয়াজ হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারত থেকে আমদানি হয়ে থাকে। সম্প্রতি দেশের নির্মাণাধীন বৃহত্তম পদ্মাসেতু, রূপপুর পারমানবিক কেন্দ্রসহ অন্যান্য উন্নয়নমূলক কাজে ভারতীয় পাথরের চাহিদা বাড়ায় হিলি স্থলবন্দর দিয়ে বড়, ছোট ও মাঝারী এই তিন আকারের পাথর বেশি পরিমানে আমদানি হচ্ছে। ফলে রাজস্ব সংগ্রহ বেড়েছে।’

এ দিকে স্থল শুল্কস্টেশনের সহকারী কমিশনার মো. ফখরুল আমীন চৌধুরী বলেন, ‘পূর্বে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে তেমন পাথর আমদানি হতোনা। বর্তমানে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে প্রচুর পরিমানে পাথর আসার কারনে বন্দরের রাজস্ব আহরণের পরিমান বেড়েছে।’

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View