ঢাকা : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, শুক্রবার, ৭:৫৬ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

কতটুকু করতে পেরেছি তার মূল্যায়ন নগরবাসী করবেন: আইভী

e403cc396632cb8bab023dff76f5e58dx800x481x37সময় তখন বিকেল ৪টা। নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের (নাসিক) মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী পদত্যাগ করে নগর ভবন থেকে বেরিয়ে আসছেন। তার পেছনে ও সামনে তখন নেতাকর্মী এবং শুভানুধ্যায়ীদের ভিড় আর স্লোগান। কথা ছিল ভাগ্নে মিনহাজুল কাদির মিমনের গাড়িতে চড়ে নগর ভবন থেকে ফিরবেন। কিন্তু এত মানুষ তাকে ‘বিদায়’ জানাতে এসেছে দেখে মত পাল্টে হেঁটেই রওনা হলেন জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের উদ্দেশে। চারপাশে তখন নেতাকর্মীদের মুহুর্মুহু স্লোগান ‘নৌকা, নৌকা’। স্লোগান শুনে রাস্তার দু’পাশে জনতাও দাঁড়িয়ে গেল আইভীকে একনজর দেখতে।

বুধবার এভাবে হেঁটেই নেতাকর্মীদের নিয়ে নগরীর ২ নম্বর রেলগেট এলাকায় অবস্থিত জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে পৌঁছেন তিনি। তার সঙ্গে নাসিকের এক নম্বর প্যানেল মেয়র ওবায়দুল্লাহ, ব্যবসায়ী আবদুর রাশেদ রাশুসহ অনেকেই ছিলেন। দলীয় কার্যালয়টিই আইভীর প্রধান নির্বাচনী ক্যাম্প হবে।

২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে অংশ নিতে বুধবার মেয়র পদ থেকে সরে দাঁড়ান আইভী। এদিনই পদত্যাগপত্র স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীর কাছে পাঠিয়ে দেন তিনি। বিকেলে নগর ভবন থেকে বের হওয়ার আগে উপস্থিত গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন তিনি।

আইভী গণমাধ্যম কর্মীদের উদ্দেশে বলেন, ‘ইচ্ছে ছিল ৪ ডিসেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের আগ পর্যন্ত কোনো কথা বলব না। কিন্তু আপনারা কষ্ট করে এসেছেন, তাই বলছি।’

তিনি বলেন, ‘গত ৫ বছর সিটি করপোরেশনে কাজ করেছি। কতটুকু করতে পেরেছি তার মূল্যায়ন নগরবাসী করবেন। আমি প্রতিটি মুহূর্ত চেষ্টা করেছি।’

গত ৫ বছরে ৬০০ কোটি টাকার কাজ হয়েছে উল্লেখ করে বিদায়ী মেয়র বলেন, উন্নয়ন কাজের মধ্যে সাড়ে ৩০০ কোটি টাকা সিটি করপোরেশনের নিজস্ব^ অর্থায়ন। বাকিটা সরকারসহ বিভিন্ন দাতা সংস্থা থেকে পাওয়া।

তিনি বলেন, বিগত দিনে যেসব উন্নয়ন কাজ হয়েছে তার সব হিসাব নগর ভবনে রয়েছে। গণমাধ্যম কর্মীরা চাইলে নগর ভবনে এসে দেখতে পারেন।

আইভী বলেন, ‘যদি আপনারা প্রশ্ন করেন আমার ব্যর্থতা কী— তাহলে বলব, আমি নগরীর শতভাগ ট্যাক্স আদায় করতে পারিনি। সর্বোচ্চ ৬০ থেকে ৭০ ভাগ পর্যন্ত ট্যাক্স আদায় হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘কী করতে পেরেছি আর কী পারিনি তা বিচারের ভার নগরবাসীর ওপর রইল। উন্নয়নের মধ্যে রাস্তা, ড্রেন নির্মাণসহ ৯ তলা বিশিষ্ট আধুনিক নগর ভবন, বাবুরাইল খালের উন্নয়নসহ অনেক কাজ এখনও চলমান। নগর ভবনে যতক্ষণ ছিলাম, ততক্ষণ কাজ করে গেছি।’

আইভী বলেন, ‘২০১১ সালের ৩০ অক্টোবর নির্বাচনে জয়লাভের পর চেষ্টা করেছি ভোটারদের ভোটের প্রতিদান দিতে। আমি সব সময় সত্যের পক্ষে ছিলাম, অন্যায়ের প্রতিবাদ করেছি। তাই একটি পক্ষের বিরাগভাজন ছিলাম সব সময়। আমি নারায়ণগঞ্জবাসীর কাছে কখনও মিথ্যা বলিনি, তাদের ফাঁকি দেইনি।’

বক্তব্যের এক পর্যায়ে আবেগাপ্লুত হয়ে আইভী বলেন, ‘বিলুপ্ত পৌরসভায় ৮ বছর এবং নবগঠিত সিটি করপোরেশনে ৫ বছর— মোট ১৩ বছর মেয়র হিসেবে দায়িত্ব^ পালন করেছি। আগামী ২২ ডিসেম্ব^র অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে আমাকে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে। আমি চেষ্টা করেছি, দল-মতের ঊর্ধ্বে উঠে কাজ করতে। তাই আগামীতেও আমি নগরবাসীর সমর্থন ও দোয়া চাই। আবারও নির্বাচিত হয়ে আপনাদের সেবা করতে চাই।’

গত মঙ্গলবার রাতে দলীয় সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে কী সিদ্ধান্ত হয়েছে— সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আইভী বলেন, নেত্রী সবাইকে একত্রে মিলেমিশে নৌকার পক্ষে কাজ করতে নির্দেশ দিয়েছেন। নৌকার বিজয়ের জন্য কাজ করতে বলেছেন।

একত্রে কাজ করার নির্দেশ দিলে তার পাশে এখনও কেন শামীম ওসমানপন্থি নেতাকর্মীরা নেই— এমন প্রশ্নের জবাবে আইভী বলেন, ‘আমি আজ (বুধবার) পর্যন্ত অফিস করেছি। নির্বাচনের কর্মকাণ্ড এখনও শুরু হয়নি। তাই এখনই দলীয় নেতাকর্মীদের পাশে থাকার প্রয়োজন নেই। নির্বাচনী প্রচার শুরু হলে অবশ্যই তারা থাকবেন।’

তিনি বলেন, ‘দলের তৃণমূলে কোনো বিভেদ নেই। বিগত নির্বাচনেও তৃণমূল নেতাকর্মীরা আমার পাশে ছিল। এবারও থাকবে।’

বিএনপি প্রার্থী অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান অভিযোগ করেছেন, আইভী নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করে এখনও সরকারি গাড়ি ব্যবহার করছেন। এ বিষয়ে আইভী বলেন, ‘আমি আজ পদত্যাগ করেছি। দেখুন কাল থেকে গাড়ি ব্যবহার করি কি-না। আমি আজ (বুধবার) যে বাড়ি যাব, দেখুন সরকারি গাড়ি নিয়ে যাই কি-না।’

উন্নয়ন হয়নি— বিএনপি প্রার্থীর এমন অভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, তিনি একটি দলের প্রার্থী। তিনি অভিযোগ করতেই পারেন। তবে উন্নয়ন কী হয়েছে তা দৃশ্যমান।

পরে তিনি নগরীর জালকুঁড়িতে মুক্তিযোদ্ধাদের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

আজ ৮ ডিসেম্বর কুমিল্লা,পটুয়াখালী মুক্ত দিবস

আজ  ৮ ডিসেম্বর পটুয়াখালী ও কুমিল্লা মুক্ত দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে হানাদার মুক্ত হয় …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *