Mountain View

আন্তর্জাতিক অপহরণকারীচক্রের থাবা বাংলাদেশে

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৫, ২০১৬ at ৫:০১ অপরাহ্ণ

8c8ad627e3981dec7821f0eb6541c592x306x212x13আর্ন্তজাতিক অপহরণকারীচক্রের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছে প্রবাসী বাংলাদেশি ও তাদের পরিবার। লিবিয়া, ইরাক, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড ও ইন্দোনেশিয়াসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে প্রবাসী শ্রমিকসহ বিভিন্ন পেশার লোকজনকে অপহরণের পর জিম্মি করে লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায় করছে এই আন্তর্জাতিক চক্র। তাদেরকে সহায়তা করছে বাংলাদেশি একটি চক্র। সম্প্রতি পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ও র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) আন্তর্জাতিক অপহরণকারীচক্রের মুক্তিপণের টাকা আদায়কারী ৪ বাংলাদেশি সদস্যকে গ্রেফতার করেছে। আন্তর্জাতিক চক্রটি বিদেশে প্রবাসী বাঙালিদের অপহরণ ও জিম্মি করে মুক্তিপণের টাকা আদায়ে দেশে-বিদেশে বাংলাদেশি কিছু প্রতারককে ব্যবহার করছে। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে সিআইডি পুলিশ ও র‌্যাবের গোয়েন্দারা আন্তর্জাতিক এই অপহরণকারীচক্রের অন্য বাংলাদেশি সদস্যদের গ্রেফতারে দেশের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালানো হচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

সূত্র জানায়, বাংলাদেশসহ মানব পাচার একটি বিশ্বজনীন সমস্যা। জীবিকার টানে মানুষ পরিবার ও দেশ ছেড়ে বিদেশে পাড়ি জমাচ্ছে। হতদরিদ্র অসহায় মানুষগুলোর আজানার উদ্দেশ্যে যাত্রা খুবই বিপদজনক হচ্ছে। আর এদের অসহায়ত্বের সুযোগ নিয়ে কিছু অর্থলোভী ও অপরাধীচক্র অর্থ আদায়ের জন্য তাদের জিম্মি করে অর্থ আদায় করছে। এসব আন্তর্জাতিক পাচারকারীরা প্রথমে গ্রামের দরিদ্রদের টার্গেট করে। এরপর তাদের বিদেশে চাকরির প্রলোভন দেখিয়ে সহজ-সরল মানুষগুলোকে ফাঁদে ফেলে বিদেশে নিয়ে যাচ্ছে। অবৈধ পথে প্রবাসে গিয়েও পড়ছে বিপদে। সেখানে তারা আন্তর্জাতিক অপহরণকারীচক্রের কাছে অপহৃত ও জিম্মি হচ্ছেন। এরপর বাংলাদেশে তাদের আত্মীয়স্বজনের কাছ থেকে অপহৃত ব্যক্তিদের হত্যাসহ বিভিন্ন প্রকার হুমকি দিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। আর এসব পাচারকারী অবৈধভাবে মানব পাচারের উদ্দেশ্যে লিবিয়া, মিয়ানমার, থাইল্যান্ড ও ইন্দোনেশিয়ার মধ্যে আন্তর্জাতিক সিন্ডিকেট তৈরি করেছে। লিবিয়ায় অপহৃত প্রবাসী বাংলাদেশিকে জিম্মি করে মুক্তিপণ আদায়কালে আন্তর্জাতিক অপহরণ চক্রের অন্যতম হোতা ও তার সহযোগীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন (২৯), ও মো. ফরহাদ হোসেন (২৮) মো. আবু বক্কর সিদ্দিক (৭৩)।

সূত্র জানায়, গত ২০১২ সালে কুড়িগ্রাম জেলার রৌমারী এলাকার মো. শহিদুল ইসলাম (৪০) লিবিয়াতে যান। চলতি বছরে তার দেশে ফিরে আসার কথা ছিল। কিন্ত গত ৩১ অক্টোবর লিবিয়ায় আন্তর্জাতিক এই অপহরণকারীচক্রের হাতে অপহৃত হন তিনি। এরপর চক্রটি তার ভাই ফারুকের কাছে ফোন করে ২ লাখ আশি হাজার টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। আর তাদের দাবিকৃত টাকা না দিলে তার ভাইকে হত্যার হুমকি দেয়। পরে ফারুক বিষয়টি র‌্যাব-১ এর কার্যালয়ে অভিযোগ করেন। আবেদনের ভিত্তিতে র‌্যাব তদন্ত শুরু করে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View