আগে যদি জানতাম মাইলফলকের কথা তাহলে আগেই বাংলাদেশে আসতাম

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৬, ২০১৬ at ৩:৪৩ অপরাহ্ণ

cymera_20161126_153842

প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ১০ হাজার রানের মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে ক্রিস গেইল। আর ৩৩২ রান করতে পারলে ছুঁয়ে ফেলবেন কাঙ্খিত মাইলফলকটি। ২৭২ ম্যাচে এ ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানবের রান ৯৬৬৮। ১৮টি শতকের সঙ্গে ৬০টি অর্ধশতক রয়েছে এ বাঁহাতির।

টি-টোয়েন্টির এই ফেরিওয়ালা বিপিএলে এবার খেলতে এসেছেন চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে। পাঁচ ম্যাচের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। বিপিএলের গত তিন আসরে ভিন্ন ভিন্ন দলের হয়ে গেইলের যা পারফরম্যান্স সে ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে ১০ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁতে খুব বেশি বেগ পেতে হবে না।

গত তিন আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স, বরিশাল বার্নাস ও বরিশাল বুলসের হয়ে ১০ ম্যাচ খেলে ৭৭.২৮ গড়ে ১৮৬.৫৫ স্ট্রাইক রেটে গেইল করেছেন ৫৪১ রান। ১০ ইনিংসের বিপিএল ক্যারিয়ারে তার রয়েছে তিনটি শতক ও একটি অর্ধশতক।

১০ হাজার রানের কাছাকাছি চলে এসেছেন তা জানা ছিলো না গেইলের। শনিবার (২৬ নভেম্বর) মিরপুর একাডেমি মাঠে অনুশীলন শেষে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হলে স্থানীয় এক সাংবাদিক মাইলফলকের কথা মনে করিয়ে দিলে গেইল বলেন, ‘৩৩২ রান দরকার? উচিত ছিল আমাকে আগে বলা, তাহলে শুরু থেকেই খেলতাম! (হাসি…) সত্যি বলতে, ১০ হাজার রানের মাইলফলক ছোঁয়া হবে দারুণ ব্যাপার। আমি হব প্রথম ব্যাটসম্যান।

তবে আবারও বলছি, আগামীকালের শুরুটাই হবে গুরুত্বপূর্ণ। যত দ্রুত সম্ভব মানিয়ে নেওয়াটা গুরুত্বপূর্ণ। সত্যি করে বলতে, মূল লক্ষ্য দলকে প্লে অফে কোয়ালিফাই করানো। প্লে অফে খেলতে চাই।’

বিপিএলে আবার আসতে পেরে ভালো লাগার কথা জানান এ তারকা ব্যাটসম্যান, ‘ফিরে ভালো লাগছে। টুর্নামেন্ট শুরু হয়ে গেছে অনেক দিন। শুরু থেকেই খেলতে পারলে ভালো লাগতো। তবে ব্যক্তিগত ঝামেলায় আসতে পারিনি। লক্ষ্য সবসময়ই ছিল এখানে আসা। চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে খেলতে মুখিয়ে আছি। শেষবার যখন পয়েন্ট টেবিল দেখেছি, দল চার নম্বরে ছিল। শুরুতে কিছু ম্যাচ হারার পর মোমেন্টাম পেয়েছে দল, মোমেন্টামে থাকা একটি দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারা সবসময়ই ভালো। আশা করি বিপিএলে আবার জয় দিয়ে শুরু করতে পারবো।’

চিটাগং ভাইকিংসের হয়ে গেইল আগামীকাল (২৭ নভেম্বর) নিজের প্রথম ম্যাচ খেলবেন রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে। শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা ৬টায় শুরু হবে ম্যাচটি। সাত ম্যাচে ১০ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে রংপুর। আট ম্যাচে ৮ পয়েন্ট নিয়ে চতুর্থ স্থানে তামিম ইকবালের চিটাগং।

এ সম্পর্কিত আরও