ঢাকা : ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, রবিবার, ১০:১৯ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

কুমিল্লা কি মৃত্যু পুরিতে পরিনত হতে চলেছে ?

crime-142811870420161018144139কুমিল্লা প্রতিনিধি।।২০১৬ সালের জানুয়ারী থেকে ১৫ নভেম্বর’১৬। দিনের হিসেবে ৩১৯ দিন মাসের হিসেবে সাড়ে  ১০ মাস সপ্তাহের হিসেবে সাড়ে ৪৫ সপ্তাহ। এই ৩১৯ দিনেই কুমিল্লায় খুনের সংখ্যা ১৩২ জন। গড়ে প্রতি আড়াই দিনেরও কম সময়ে ১ জন করে খুন হয়েছেন,প্রতি সপ্তাহে খুন হয়েছেন প্রায় ৩ জন আর প্রতি মাসে খুন হয়েছেন প্রায় ১৩ জন।এ হিসাবটিই বলে দেয় শান্ত-শিষ্ট কুমিল্লা জেলা এখন মৃত্যু পুরির পথে একধাপ এগিয়ে।
সে সাথে  একই সময়ে উদ্বেগজনক হারে বেড়েছে অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার, খুন, ধর্ষণ, নারী নির্যাতন, চুরি ডাকাতি, অপহরণ, মাদক চোরাচালানসহ অন্যান্য অপরাধও ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে। এ সকল অপরাধে মামলা হয়েছে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার।
রাজনৈতিক ও ব্যক্তিগত বিরোধের জের ধরে প্রকাশ্যে গুলি চালিয়ে হত্যার ঘটনাও ঘটেছে অনেক। প্রকাশ্যে অবৈধ অস্ত্রের ব্যবহার হলেও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার উদ্ধারের তালিকা হতাশাব্যাঞ্জক।
অনুসন্ধান ও জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় পুলিশের মাসিক পর্যালোচনা রিপোর্ট থেকে জানা গেছে- চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত জেলার ১৬ উপজেলার ১৭ থানায় ১৩২টি খুনের ঘটনা ঘটেছে। একই সময়ে চুরি, ডাকাতি, নারী নির্যাতন, অপহরণ ও মাদকসহ অন্যান্য অভিযোগে মোট মামলা হয়েছে পাঁচ সহস্রাধিক।
মাস অনুযায়ীঃ
জানুয়ারীঃ জানুয়ারি মাসে খুনের ঘটনা ঘটে ৯ টি, নারী ও শিশু নির্যাতন ৩৬, অস্ত্র মামলা দুটি, মাদক ২০৭সহ অন্যান্য অপরাধে মামলা ৪৩৬টি,
ফেব্রুয়ারিঃ ফেব্রুয়ারি মাসে খুন ১৪, নারী ও শিশু নির্যাতন ৩৮, অস্ত্র ৭, মাদক ৩৪২ সহ অন্যান্য অপরাধে মোট মামলা ৫০০।
মার্চঃ মার্চ মাসে খুন ১৪টি, নারী ও শিশু নির্যাতন ৬১, অস্ত্র ৮, মাদক ১৮৯, অন্যান্য অপরাধ ৪৯২,
এপ্রিলঃ এপ্রিলে খুন ১৫, নারী ও শিশু নির্যাতন ৪৩, অস্ত্র ৩, মাদক ১৮৮, মোট অপরাধ ৪৯৯,
মেঃ মে মাসে খুন ১৬, নারী ও শিশু নির্যাতন ৪৭, অস্ত্র ৮, মাদক ১৭৫টি মোট অপরাধ ৫০৫।

জুনঃ জুন মাসে খুন ১০টি, নারী ও শিশু নির্যাতন ৫২, অস্ত্র ৭, মাদক ২০৯, মোট অপরাধ ৫৪৬,
জুলাইঃ জুলাই মাসে খুন ৬, নারী ও শিশু নির্যাতন ৪৯, অস্ত্র ৬, মাদক ১৭১, মোট মামলা ৪৫৪টি,
আগস্টঃ  আগস্টে খুন ১০, নারী ও শিশু নির্যাতন ৪২, অস্ত্র ১৪, মাদক ৩৩১, মোট অপরাধ ৬৪৯,
সেপ্টেম্বরঃ  সেপ্টেম্বরে খুন ১৪, নারী ও শিশু নির্যাতন ৪৭, অস্ত্র ১৪, মাদক ২৪১, মোট অপরাধ ৫৩৫,
অক্টোবরঃ অক্টোবরে খুন ১৪, নারী ও শিশু নির্যাতন ৪৮, অস্ত্র ৮, মাদক ৩২০সহ মোট অপরাধ ৫৭৩টি।
নভেম্বরঃ ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত খুনের ঘটনাই ঘটেছে ১০টি।
১৩২টি হত্যাকাণ্ডের মধ্যে বেশ কিছু  হত্যাকাণ্ড রয়েছে আলোচনা-সমালোচনায়।তা হলঃ
আলোচিত হত্যাকান্ডঃ
(১) কুমিল্লা সেনানিবাসের অভ্যন্তরে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া কলেজছাত্রী সোহাগী জাহান তনু হত্যাকাণ্ডটি অন্যতম, যা নিয়ে কুমিল্লাসহ দেশব্যাপী তোলপাড় সৃষ্টি হয়। যদিও ওই হত্যাকাণ্ডের এখনো কোনো কূল-কিনারা করতে পারেনি তদন্ত সংস্থা সিআইডি।
(২) ২৭ ফেব্রুয়ারি কুমিল্লা মহানগরীর দক্ষিণ রসুলপুর (ঢুলিপাড়া) এলাকায় ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির বিবিএ শেষ বর্ষের ছাত্র মো. আল সফিউল ইসলাম ছোটন তার সৎ ভাই মেহেদী হাসান জয় ও মেজবাউল হক মনিকে গলাটিপে হত্যার ঘটনাটি বেশ আলোচিত হয়।
(৩) ৮ মে চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলায় নির্বাচন চলাকালে মাধবপুর ইউনিয়নের উত্তর চান্দলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে কুপিয়ে হত্যা করা হয় তাপসচন্দ্র দাসকে।
(৪) এ ছাড়াও ২৯ মে পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচন চলাকালে তিতাস উপজেলার বলরামপুর ইউনিয়নের বিএনপির মনোনীত প্রার্থী তোফায়েল আহাম্মদের সমর্থকেরা একই ইউনিয়নের বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী ও চেয়ারম্যান মো. কামাল উদ্দিনকে কুপিয়ে ও টেঁটাবিদ্ধ করে হত্যা করে।
(৫) ১৩ মে রাতে মনোহরগঞ্জে যুবলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলমকে (৩০) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। একই দিন ভোরে সদর উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের চিহ্নিত সন্ত্রাসী আরিফ ও তার বাহিনীর গুলিতে নিহত হন আদর্শ সদর উপজেলা জাতীয়তাবাদী ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক এবং ব্যবসায়ী একেএম রকিব উদ্দিন মুকুল।
(৬) আগস্টে সবচেয়ে আলোচিত হত্যাকাণ্ডের মধ্যে ছিল শোকাবহ আগস্টের প্রথম প্রহরে কুমিল্লা বিশ্ববিদালয়ের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগ নেতা সম্পাদক খালিদ সাইফুল্লাহ হত্যাকাণ্ড।
(৭) খালেদ সাইফুল্লাহ হত্যার রেশ না কাটতেই গত ২৩ আগস্ট ভোর ৬টার দিকে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়সংলগ্ন সালমানপুর এলাকায় ‘প্রশান্তি’ নামে এক বেসরকারি ছাত্রী নিবাসের (মেস) নিচতলায় পুর্ব পরিকল্পিত বিস্ফোরণে ফাহমিদা হাসান নিশা দগ্ধ হন। ঢামেকের বার্ন ইউনিটে ১৩ দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে গত ৪ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে নিশা মারা যান।
(৮) ১২ আগস্ট রাতে রাস্তা নিয়ে বিরোধের জের ধরে সদর দক্ষিণ উপজেলার ধনাইতরী গ্রামের জামাল হোসেন (৬০) ও একই গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের (৪৫) খুনের ঘটনা ছিল উল্লেখযোগ্য।
(৯) ১৪ আগস্ট রাতে কুমিল্লা নগরীর হাউজিং এস্টেটে স্ত্রী নাসিমা আক্তার (৩০) ও ছেলে নাফিস (দেড় বছর) হত্যা করে নাসিমার স্বামী নাজমুল হাসান।
(১০) ৭ নভেম্বর বুড়িচং উপজেলার নিমসার গ্রামে মাদক বিক্রির টাকা নিয়ে বিরোধের জের ধরে শিক্ষার্থী হাফেজ সালমান খান সবুজ ও মোক্তার হোসেন নামে দুই যুবককে পিটিয়ে হত্যা করা হয়।
(১১)সর্বশেষ গত ৮ নভেম্বর-দাউদকান্দির গৌরীপুর পেন্নাই এলাকায় প্রকাশ্যে গুলি চালিয়ে তিতাস উপজেলার জিয়ারকান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনির হোসাইন সরকার ও গাড়িচালকের সহকারি মহিউদ্দিনের হত্যাকান্ড।
কুমিল্লায় খুন, অপহরণ, নারী ও শিশু নির্যাতন, অস্ত্রবাজিসহ অন্যান্য অপরাধের উদ্বেগজনক পরিস্থিতি নিয়ে একাধিকবার যোগাযোগ করেও জেলা পুলিশের দায়িত্বশীল কোনো কর্মকর্তার মন্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

23cac260e0e06efa81849ba8495e00cfx236x157x8

‘গুম’ বলে কোনো শব্দ নেই : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, ‘গুম বলে আমাদের কোনো কিছু জানা নেই। গুম বলে কোনো …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *