ঢাকা : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, সোমবার, ৬:৪৪ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

‘ভাল আছি, বাড়ি যাচ্ছি, আমার জন্য দোয়া করবেন’

ba15a90394f17dcf8513ebc79ddc14a3x600x400x24আমি ভাল আছি’, ‘বাড়ি যাচ্ছি আমার জন্য সবাই দোয়া করবেন’, কথাগুলো বলছিলেন প্রায় দু’মাস চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে উঠা সিলেটে ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলমের চাপাতির আঘাতে আহত খাদিজা আক্তার নার্গিস।

শনিবার সংবাদ সম্মেলনে সে দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন। অসুস্থ খাদিজা প্রথমবারের মতো দেশবাসীর সামনে কথা বলেন। রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে এক সংবাদ সম্মেলনে দুঃসময়ে তাকে সমর্থনের জন্য দেশবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন খাদিজা।

সংবাদ সম্মেলনে সবাইকে সালাম জানিয়ে তিনি বলেন, ‘দেশবাসী, সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। আপনারা আমার জন্য অনেক দোয়া করেছেন। আপনাদের দোয়ায় আমি সুস্থ আছি, ভালো আছি। আপনারা আমার জন্য আরো দোয়া করবেন, আমি যেন

সম্পূর্ণ সুস্থ হই।’

গণমাধ্যম ও চিকিৎসকদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে খাদিজা বলেন, ‘আপনারা আমার জন্য অনেক করেছেন। অনেক দোয়া করেছেন। আপনারা আমার জন্য আরো দোয়া করবেন।’

এরআগে সংবাদ সম্মেলনে স্কয়ার হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা খাদিজার শারীরিক অবস্থার কথা তুলে ধরেন।

তাদের মতে,খাদিজাকে সঠিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। এখন তার সুস্থ হয়ে ওঠা কেবল সময়ের ব্যাপার।

উল্লেখ্য, গত ৩ অক্টোবর বিকালে সিলেটের এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে সরকারি মহিলা কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নার্গিস বেগম খাদিজার (২৩) ওপর হামলা চালায় শাহাজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র ও শাবি ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলম।

এ সময় চাপাতি দিয়ে খাদিজার শরীরের বিভিন্ন স্থানে উপর্যুপুরি কোপাতে থাকেন বদরুল। এতে খাদিজার মাথা ও পায়ে গুরুতর আঘাতপ্রাপ্ত হয়।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে তার মাথায় অস্ত্রোপচার করে সেলাই দেয়া হয়।

পরে অবস্থার অবনতি হওয়ায় ৪ অক্টোবর ভোরে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে। সেখানে আরেক দফা তার মাথায় অস্ত্রোপচার করা হয়।

আর হামলাকারী ছাত্রলীগ নেতা বদরুলকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে স্থানীয় জনতা। বদরুল ছাতক উপজেলার মুনিরজ্ঞাতি গ্রামের সাইদুর রহমানের ছেলে এবং খাদিজা সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ আউশা গ্রামের সৌদি প্রবাসী মাসুক মিয়ার মেয়ে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

shahid-minar-0-696x418

শহীদ মিনারের এ কেমন অবমাননা?

বহু আবেগ আর ত্যাগের বিনিময়ে বাঙালি জাতি পায় বাংলা ভাষার রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি। ১৯৫২ সালের ভাষা …

Mountain View

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *