Mountain View

খালেদা পারবে হাসিনা পারবেন না!

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৭, ২০১৬ at ৮:১৮ অপরাহ্ণ

hasina-khaleda

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নিতে বাধা নেই। তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রচারণায় অংশ নিতে পারবেন না।

আজ (রোববার) ২৭ নভেম্বর ইসির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ইসি সচিব মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ এসব কথা বলেন।

মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ বলেন, নির্বাচনের আইন-শৃঙ্খলা বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে ১৪ ডিসেম্বর।তিনি বলেন, নির্বাচন উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জে উৎসবমুখর পরিস্থিতি বিরাজ করছে। আশা করছি, নারায়ণগঞ্জবাসী ও জাতি একটি ভালো নির্বাচন দেখবে। ভালো নির্বাচন করার জন্যে সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিএনপির সেনা মোতায়েনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে সচিব বলেন, আইন-শৃঙ্খলা বৈঠকে সার্বিক পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে নিরাপত্তা বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইতিমধ্যে নির্বাচনী এলাকায় বৈধ অস্ত্র জমা দেওয়া, অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা নিশ্চিতে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার জন্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী যথাসময়ে এ কার্যক্রম নেবেন। আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে ঘরোয়া বৈঠকে আওয়ামী লীগ প্রার্থী ও সংসদ সদস্যরা অংশ নিয়েছেন। এতে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছেন বলে অভিযোগ তুলেছে বিএনপি।

বিষয়টি নিয়ে সচিব আব্দুল্লাহ বলেন, রাজনৈতিক দলের পক্ষ থেকে ঘরোয়া মিটিং করতেই পারেন। এটা তো নির্বাচনী এলাকায় হয়নি। মন্ত্রী-এমপিরা নির্বাচনী এলাকায় এ ধরনের বৈঠক করতে পারবেন না, প্রচারণা চালাতে পারবেন না। কাজেই এতে আচরণবিধি লঙ্ঘন হওয়ার কথা নয়।

তিনি আরো বলেন, দলীয় প্রধান হয়েও সংসদ সদস্য না হওয়ায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালদা জিয়ার নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিতে কোনো বাধা নেই। কেননা, তিনি সরকারি সুবিধাভোগী অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি নন।

নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়ে কোনো জনসভা, মিছিল, সমাবেশ, শোডাউনের সুযোগ নেই। শুধু পথসভা করা যাবে। সেই সঙ্গে ঘরোয়া সভা করতেও প্রশাসন-পুলিশের কাছে আগেই অনুমতি নিতে হবে।

২২ ডিসেম্বর এ সিটি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ করবে ইসি। এতে আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ ৮টি দলের প্রার্থী মেয়র পদে অংশ নিচ্ছে। সাধারণ ও সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে নির্দলীয়ভাবে ভোট হবে।

নতুন ভোটার হিসেবে অন্তর্ভূক্তি নিয়ে ইসি সচিব বলেন, ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত বাদ পড়া ভোটারা উপজেলা নির্বাচন অফিসে গিয়ে ভোটার হতে পারবেন।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে ইসির অতিরিক্ত সচিব মোখলেসুর রহমান ও নির্বাচন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক খন্দকার মিজানুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View