Mountain View

৫৬ লাখ টাকায় বিবাহ বিচ্ছেদ কণ্ঠশিল্পী সালমার

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৭, ২০১৬ at ৭:০৯ অপরাহ্ণ

ক্লোজআপ তারকা কণ্ঠশিল্পী সালমা ও সাংসদ শিবলী সাদিকের মধ্যে ডিভোর্স হয়ে গেছে। গত ২০ নভেম্বর রাজধানীর ধানমণ্ডি এলাকার একটি রেস্তোরাঁয় দুই পরিবারের উপস্থিতিতে তালাক সম্পন্ন হয়েছে বলে জানা গেছে।full_856683316_1480153659

ফোক গায়িকা সালমা এনটিভির রিয়েলিটি শো ‘ক্লোজআপ তোমাকেই খুঁজছে বাংলাদেশ’ এর মাধ্যমে রাতারাতি সংগীতশিল্পী হিসাবে খ্যাতি অর্জন করেন। তার গানে মুগ্ধ হন দিনাজপুরের সংগীত পরিবারের ছেলে শিবলী সাদিক। ২০১১ সালে সালমা ও শিবলী সাদিকের পারিবারিকাভাবেই বিয়ে সম্পন্ন হয়।

পরে শিবলী সাদিক পিতার উত্তরসূরি হিসেবে রাজনীতিতে মনোনিবেশ করেন। দিনাজপুর ৬ আসন থেকে পিতার মৃত্যুর পর প্রার্থী হন এবং সর্বশেষ সংসদে সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হন।

সূত্র জানায় গত ২০ নভেম্বর একটি রেস্তোরাঁয় তাদের ডিভোর্সের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়। এ সময় শিবলি সালমাকে মোহরানার ২০ লাখ ১ টাকা বুঝিয়ে দেন। তবে দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, অন্যান্য আনুষাঙ্গিক বিষয়াদি মিলিয়ে সালমাকে মোট ৫৬ লাখ টাকা পরিশোধ করেন শিবলী সাদিক।

এ ব্যাপারে সামলার সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তার নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে ফেসবুকে তিনি জানান, বিচ্ছেদ হয়েছে এ খবরটি চূড়ান্ত। কিন্তু কী কারণে এ বিচ্ছেদ? এ প্রসঙ্গে ঘনিষ্ঠজনদের মত, সালমার চলাফেরায় শিবলীর ‘হস্তক্ষেপ’ বিচ্ছেদের কারণ বলে মনে করা হচ্ছে।

২০১১ সালের ২৬ জানুয়ারি দিনাজপুর পৌরসভার চেয়ারম্যান ও দিনাজপুরের পিকনিক স্পট স্বপ্নপুরীর স্বত্বাধিকারী শিবলী সাদিকের সঙ্গে হঠাৎ করেই বিয়ের পিঁড়িতে বসেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী সালমা। ২০১৪ সালের ১ জানুয়ারি সালমার কোল জুড়ে আসে এক কন্যা সন্তান।

বিয়ের বছর দুয়েক আগে দিনাজপুরের স্বপ্নপুরীতে একটি অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করতে গেলে শিবলীর সাথে সালমার পরিচয় হয়। সেই সুত্র ধরেই দুই পরিবারের মধ্যস্থতায় সম্পূর্ণ ঘরোয়াভাবে তাদের বিয়ে হয়। বিচ্ছেদের পর সালমা ধানমণ্ডিতে নিজের ফ্ল্যাটে রয়েছেন। কিন্তু কন্যা স্নেহা বাবা শিবলী সাদিকের সঙ্গে থাকছে।

এ সম্পর্কিত আরও