Mountain View

নির্বাচকদের চোখ বিপিএলের তরুণ ক্রিকেটারদের দিকে!

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৯, ২০১৬ at ৯:৪৭ পূর্বাহ্ণ

habibul

চলবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) চতুর্থ আসর। লিগটি আয়োজনের মূল লক্ষ্য প্লেয়ার তুলে আনা। লিগটির প্রতি আসরেই দুর্দান্ত পারফর্মেন্স দিয়েই আলোচনায় উঠে আসার পাশাপাশি জাতীয় দলের হয়েও খেলার সুযোগ পান তরুণ ক্রিকেটাররা।যেমন ভাবে বিপিএলের প্রথম দুই আসর থেকে উঠে এসেছেন সাব্বির রহমান এবং মমিনুল হক। আর গত আসরে আবু হায়দার রনি। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে ১২ ম্যাচে ২১ উইকেট তুলে সবার নজড় কাড়েন এ বাঁহাতি পেসার।আর বিপিএলে নিজেদের জাত চিনিয়ে ডাক পেয়েছেন জাতীয় দলে। এদিকে তরুণদের জাতীয় দলে জায়গা করে নেয়ার প্ল্যাটফর্ম হিসেবেই ধরা হয় বিপিএলকে।তাইতো জাতীয় দলের নির্বাচক হাবিবুল বাশার সুমন তাকিয়ে নতুন ক্রিকেটারদের পারফরম্যান্সের দিকে।

তার মতে, জাতীয় দলে যারা আছেন তারা সবাই পরীক্ষিত ক্রিকেটার। নতুন যারা উঠে আসবেন তারাই হবেন দেশের ভবিষ্যৎ ক্রিকেটার বা সম্পদ।সোমবার মিরপুরের একাডেমি মাঠে খুলনা টাইটানসের অনুশীলন দেখতে এসে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হন হাবিবুল। সেখানে তিনি জানান, ‘আমি আসলে বিপিএলে নতুন প্লেয়ারদের পারফরম্যান্সের দিকেই তাকিয়ে থাকি।জাতীয় দলের প্লেয়াররা সবাই কিন্তু পরীক্ষিত। রান করে এসেছেন, করছেন এবং করবেনও। আমি ব্যক্তিগতভাবে তাকিয়ে থাকি নতুন কোন খেলোয়াড়টা উঠে আসলো।বিপিএলের প্রতিটি আসরেই পাইপলাইনে কিছু না কিছু প্লেয়ার যোগান দেয়। আমি আসলে এদিকেই তাকিয়ে থাকি।’

এদিকে চলতি বিপিএলে জাতীয় দলের সকল ক্রিকেটারই ভালো পারফর্ম করছেন। এছাড়াও নতুন খেলোয়াড়রাও ভালো করছেন বলে মনে করেন সাবেক এই টাইগার দলপতি।তিনি বলেন, ‘জাতীয় দলের যারা মূল ক্রিকেটার সবাই কিন্তু কম-বেশি ভালো করছে। কেউই কিন্তু খারাপ করছে না। সাথে কিছু নতুন খেলোয়াড় আছে তারাও ভালো করছে। বিপিএলের সবচেয়ে ভালো দিক, নতুন প্লেয়ারদের দিকেই আমি তাকিয়ে থাকি।’-যোগ করেন এ নির্বাচক।নতুন যারা পারফরমার তাদের নাম বিপিএলের মাঝপথে জানাবেন না হাবিবুল বাশার। বিপিএল শেষ হলেই তাদের নাম জানাবেন সংবাদমাধ্যমে, ‘নামগুলো আমি বলতে চাচ্ছি না। বিপিএল পুরোটা দেখতে চাই।শুরুতেই নাম বলাটা সমীচীন মনে করি না। পুরো টুর্নামেন্ট শেষ হলেই মূল্যায়ন করতে পারবো বিপিএল থেকে আমরা কাকে পেলাম, কাকে ভবিষ্যতের জন্য ভাববো।’

এ সম্পর্কিত আরও