শিল্পাকে নিয়ে ঠাট্টা!

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৯, ২০১৬ at ৫:৩৩ অপরাহ্ণ

0ccf8b71888c0b001e2a62ccc7eaadecx624x405x37বলিউড তারকাদের বিদ্যার দৌড় নিয়ে মাঝেমধ্যেই বেশ কথা ওঠে। একটু ঘাঁটাঘাঁটি করলেই বোঝা যায়; আসলে কতটা কার্যকরী জ্ঞান রাখেন তারা। এবার যেন তেমনই এক ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঘটল শিল্পা শেঠিকে নিয়ে।

সম্প্রতি শিল্পা যা ঘটিয়েছেন তাতে অনেকের কাছেই হাসি ঠাট্টার পাত্রী হয়েছেন তিনি। না জেনেই একটি বিষয় নিয়ে বেফাঁস মন্তব্যে ফেঁসে গেছেন এই তারকা অভিনেত্রী।

সংবাদ প্রতিদিন বলছে, এক সাংবাদিক পাঠ্যক্রমে হ্যারি পটারের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে মতামত চেয়েছিল শিল্পার কাছে। সেই মতামত দিতে গিয়েই বেফাঁস মন্তব্য করে বিপত্তি বাধিয়েছেন নায়িকা।

‘লর্ড অফ দ্য রিংস, হ্যারি পটারের মতো বই পাঠ্যক্রমে অন্তর্ভুক্ত হলে তো ভালই! যা খুব অল্প বয়স থেকেই পড়ুয়াদের কল্পনাশক্তিকে বিকশিত করতে পারবে’, জানিয়েছেন শিল্পা। বেশ কথা! তাহলে গণ্ডগোলটা কোথায়? সমস্যাটা বেঁধেছে এখানে, এর ঠিক পরেই বলেছেন তিনি, ‘আমার তো মনে হয় অ্যানিমাল ফার্ম বইটাও পাঠ্যক্রমে রাখা উচিত, যাতে ছোটরা জীবজন্তুদের ভালবাসার অনুপ্রেরণা পায়।’

আসলে জর্জ অরওয়েলের ‘অ্যানিমাল ফার্ম’ ভীষণভাবেই একটি রূপক লেখা। সেখানে একটা খামারের রূপকে বলা হয়েছিল দেশের দুর্দশার কথা, জীবজন্তুরা সবাই সেখানে সমাজের একেকটি শ্রেণিকেই প্রতীকায়িত করছে। ১৯১৭ সালে প্রকাশিত এই বইটার মধ্যে সোভিয়েত ইউনিয়নের স্তালিনবাদী জামানার ছাপ স্পষ্ট টের পাওয়া যায়। ফলে, পশুপ্রেমের কোনও বার্তা ওই বইয়ের মধ্যে খুঁজে পাওয়া যাবে না।

শিল্পার এ মন্তব্যের পরই টুইটারে শুরু হয়েছে হাসাহাসি। যেমন, ‘ফিফটি শেডস অফ গ্রে বইটাও পাঠ্যক্রমে রাখা হোক, ওটা একটা দারুণ কালার বুক, বাচ্চারা আঁকা শিখবে!’ অনেকে বলছেন আরও একটু বিদ্রুপ করে, ‘লর্ড অফ দ্য রিংস পড়ে বাচ্চারা গয়নাগাটি ফেরত দিতে শিখবে, অন্যের জিনিস নিজের কাছে রাখবে না’ এমন অনেক কথা।

এ সম্পর্কিত আরও