Mountain View

কালীগঞ্জের চাঞ্চল্যকর ইজিবাইক চালক হত্যা মামলার রহস্য উদঘাটন মূল আসামি গ্রেফতার॥

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ৩০, ২০১৬ at ৯:১০ অপরাহ্ণ

pi2ঝিনাইদহের কালীগঞ্জের চাঞ্চল্যকর ইজিবাইক চালক খোকন দাস (৩৫) হত্যা মামলার মূল রহস্য উদঘাটন হয়েছে বলে পুলিশ দাবি করেছে। এ মামলার প্রধান আসামি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মাধবপুর গ্রামের আবুল কালামের ছেলে হানিফ (২২) কে মঙ্গলবার (২৯/১১/২০১৬) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার গান্না বাজার থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর হানিফ আজ বুধবার বিকেলে ঝিনাইদহ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কাজী আশরাফুজ্জামানের আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যাকা-ের দায়ভার স্বীকার করে গুরুত্বপূর্ণ জবানবন্দী দেয় বলে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নিরব হোসেন এ প্রতিবেদককে জানান। ১৬৪ ধারা জবানবন্দীতে ইজিবাইক চুরির উদ্দেশেই চালক খোকন দাসকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রধান আসামি হানিফ স্বীকারোক্তি দিয়েছে এবং ঘটনার সাথে আরো কারা জড়িতসহ গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। কিন্তু মামলার তদন্তের স্বার্থে তদন্তকারী কর্মকর্তা তা প্রকাশ করতে অস্বীকৃতি জানান। তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই নিরব হাসেন জানান, পূর্বে শ্রীকান্ত মজুমদার ও সোহেল নামের দুই ব্যক্তিকে আটক করা হয়। সে সময় তাদের কাছ থেকে চুরি হওয়া ইজিবাইক ও চালক খোকন দাসের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়। এরপর তাদের দেয়া স্বীকারোক্তিতে হানিফ কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানাগেছে, চলতি বছরের ২২ জুন কালীগঞ্জে উপজেলার বেজপাড়া গ্রামের শ্যামো দাসের ছেলে ইজিবাইক চালক খোকন দাস নিখোঁজ হয়। এর ৪ দিন পর ২৬ জুন সকালে উপজেলার মোল্লাকুয়া গ্রামের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেনের একটি আখক্ষেতের মধ্যে থেকে তার লাশ পাওয়া যায়। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই রিপন দাস বাদি হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। যার মামলা নং ০৭। তারিখ-২৬/০৬/২০১৬ ইং।
এ মামলায় পুলিশ ঢাকার ধামরাই দক্ষিনপাড়া থেকে অর্পন মজুমদারের ছেলে শ্রীকান্ত (৩১) কে গত ২৯ নভেম্বর আটক করে এবং নিহত ইজিবাইক চালক খোকন দাসের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন তার কাছ থেকে উদ্ধার করে। পরে শ্রীকান্তের স্বীকারোক্তিতে সাভার এলাকা থেকে ছোট চন্দ্রাইল গ্রামের আব্দুল হামিদের ছেলে সোহেল (৩২) কে ২০ নভেম্বর আটক করে এবং তার কাছ থেকে ইজিবাইকটি উদ্ধার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা কালীগঞ্জ থানার এসআই নিরব হোসেন জানান, গুরুত্বপূর্ণ এ মামলার প্রধান আসামি হানিফকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে হত্যার কথা স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দী দিয়েছে এবং আসামিদের কাছ থেকে ইজিবাইক চালকের মোবাইল ফোন ও চুরি হওয়া ইজিবাইক উদ্ধার করা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View