ঢাকা : 20 October, 2017, Friday, 8:33 PM
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ / রাজনীতি / আমি নির্দোষ, ন্যায়বিচার চাই : খালেদা জিয়া

আমি নির্দোষ, ন্যায়বিচার চাই : খালেদা জিয়া

প্রকাশিত :

d203cfeaa7bd37eb2a18984da260b55ex600x400x41-1

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নিজেকে নির্দোষ দাবি করলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি আদালতে বলেন, ‘আমি নির্দোষ। ন্যায়বিচার চাই।’ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় তিনি ঢাকার বকশিবাজারে কারা অধিদফতরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকা ৩ নম্বর বিশেষ জজ আদালতে প্রবেশ করেন।

খালেদা জিয়া আদালতকে বলেন,  ‘মিথ্যা মামলায় বিরোধী দলের হাজার হাজার কর্মী এখন কারাবন্দি। আমার দলের চার লাখের বেশি নেতাকর্মীর

বিরুদ্ধে ২৫ হাজারের মতো মামলা দেওয়া হয়েছে। নেতাকর্মীরা নির্যাতন ও হয়রানির ভয়ে ঘরে থাকতে পারছেন না।’

এ সময় বিচারক আবু আহমেদ জমাদার আসামিদের মামলার অভিযোগ পড়ে শোনান। এ সময় ৩২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। এ সময় খালেদা জিয়া নিজেকে নির্দোষ দাবি করে লিখিত বক্তব্য দেন। এ সময় বিচারক আগামী ৮ ডিসেম্বর বক্তব্যের বাকি অংশ পড়ে শোনাতে নির্দেশ দেন।

ছাত্রদল নেতা এজমল হোসেন পাইলট বলেন, আদালত প্রাঙ্গণে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ইতোমধ্যে খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে থাকা নেতাকর্মীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর ধস্তাধস্তি হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে। এ মামলায় ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি অভিযোগপত্র দাখিল করে দুদক।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় নিজেকে নির্দোষ দাবি করলেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তিনি আদালতে বলেন, ‘আমি নির্দোষ। ন্যায়বিচার চাই।’ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় তিনি ঢাকার বকশিবাজারে কারা অধিদফতরের প্যারেড মাঠে স্থাপিত অস্থায়ী ঢাকা ৩ নম্বর বিশেষ জজ আদালতে প্রবেশ করেন।

খালেদা জিয়া আদালতকে বলেন,  ‘মিথ্যা মামলায় বিরোধী দলের হাজার হাজার কর্মী এখন কারাবন্দি। আমার দলের চার লাখের বেশি নেতাকর্মীর

বিরুদ্ধে ২৫ হাজারের মতো মামলা দেওয়া হয়েছে। নেতাকর্মীরা নির্যাতন ও হয়রানির ভয়ে ঘরে থাকতে পারছেন না।’

এ সময় বিচারক আবু আহমেদ জমাদার আসামিদের মামলার অভিযোগ পড়ে শোনান। এ সময় ৩২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। এ সময় খালেদা জিয়া নিজেকে নির্দোষ দাবি করে লিখিত বক্তব্য দেন। এ সময় বিচারক আগামী ৮ ডিসেম্বর বক্তব্যের বাকি অংশ পড়ে শোনাতে নির্দেশ দেন।

ছাত্রদল নেতা এজমল হোসেন পাইলট বলেন, আদালত প্রাঙ্গণে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। ইতোমধ্যে খালেদা জিয়ার গাড়িবহরে থাকা নেতাকর্মীদের সঙ্গে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর ধস্তাধস্তি হয়েছে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগ এনে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১১ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে। এ মামলায় ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি অভিযোগপত্র দাখিল করে দুদক।

Check Also

নিয়মতান্ত্রিক কর্মসূচিতে সীমাবদ্ধ আওয়ামী লীগ

টানা দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় এসে রাজনৈতিক ইতিহাসে নজির স্থাপন করেছে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। দ্বিতীয় দফায় ক্ষমতায় …

Leave a Reply