Mountain View

বিদেশের জাতীয় দলে দেশের গর্ব ক্রিকেটার রিয়াদ খান

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ১, ২০১৬ at ৩:৪৮ অপরাহ্ণ

d203cfeaa7bd37eb2a18984da260b55ex600x400x41-1স্পোর্টস ডেস্ক: নানা দেশ ঘুরে ঘুরে খেলে বেড়ানো ফুটবলার আপনি অহরহ দেখতে পাবেন। লিওনেল মেসি থেকে শুরু করে লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর যে কোনো ফুটবলারের পকেটে দু তিনটে পাসপোর্ট থাকে। ক্রিকেটে এই ধরণের বহুজাতিক ক্রিকেটার তুলনামূলক কম। এর মধ্যেই আমরা শুনলাম রিয়াদ খানের কথা।বিদেশের জাতীয় দলে বাংলাদেশের গর্ব ক্রিকেটার রিয়াদ খান।

শুনতে পেলাম যে, বাংলাদেশের লক্ষীপূরের এক রিয়াদ খান ঢাকা লিগ থেকে যাত্রা শুরু করে, মালয়েশিয়ান প্রিমিয়ার লিগ, নিউজিল্যান্ডের মাইনর ক্রিকেট খেলে এখন ফিজিতে থিতু হয়েছেন। এমনকি তিনি নাকি ফিজি জাতীয় দলেও খেলে ফেলেছেন।

একটু খোজ খবর নিতে জানা গেলো, শেষ দিকে একটু তথ্য বিভ্রাট হয়েছে। রিয়াদ খান নামে ফিজি জাতীয় দলে একজন খেলছেন; তিনি শ্রীলঙ্কান। আর আমাদের রিয়াদ খান ফিজির জাতীয়তা পাওয়ার অপেক্ষায় আছেন। জাতীয়তা পেয়ে গেলে ফিজি জাতীয় দলে খেলা প্রথম বাংলাদেশী

হয়ে যাবেন।

রিয়াদ হাসতে হাসতে বললেন, ‘ফিজিতে ক্রিকেট খেলা একমাত্র বাংলাদেশীই তো আমি। ফলে জাতীয় দলেও প্রথমই হবো।’হ্যা, যাযাবর ক্রিকেটার রিয়াদ এখন ফিজি জাতীয় দলের অপেক্ষায় আছেন।

রিয়াদের বাড়ি লক্ষীপুরে। সেখান থেকে ঢাকায় এসে দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট খেলেছেন। অনুর্ধ্ব-১৫ বয়সভিত্তিক দলেও খেলেছেন। অনুর্ধ্ব-১৯ বিভখাগীয় প্রতিযোগিতাতেও খেলেছেন। তারপর ২০১০ সাল নাগাদ ক্রিকেটে আর খুব উৎসাহ না পেয়ে পড়াশোনা ও ভাগ্যের সন্ধানে গেছেন ফিজি।

কিছুদিন ফিজিতে কাটানোর পর দেশে ফিরে গিয়েছিলেন মালয়েশিয়া। সেখানে ছিলেন এক বছর। ওই বছরে মালয়েশিয়ায় একটি বিশ্ববিদ্যালয় দলের হয়ে খেলেছেন এক মৌসুম। তারপর আবার ফিজি। ফিজিতে ন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নশিপ আর প্রিমিয়ার লিগ খেলেছেন। তাতেই ফিজির ক্রিকেটের অন্যতম বড় নাম হয়ে গেছেন।

এর মধ্যে আবার ফিজিতেই বিয়ে করে ফেলেছেন। স্ত্রীর পড়াশোনার সূত্রে অকল্যান্ডে গেছেন। সেখানেও চলছে ক্রিকেটের যোগাযোগ। তবে ফিজি ডাকছে রিয়াদকে।

আঠারো শতক থেকে ক্রিকেট শুরু করা এবং ১৯৬৫ সালে আইসিসির সদস্যপদ পাওয়া ফিজির ক্রিকেট এখনও শক্ত ভূমির ওপর দাড়ায়নি। বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক কোচ শেন জার্গেনসেন গিয়েও চেষ্টা করেছেন। স্থানীয়দের ভেতরে এখনও রাগবির জনপ্রিয়তার শতাংশও নেই ক্রিকেটের। ফলে বিদেশী কেউ ভালো করে নাগরিকত্ব পেলে তার জন্য খুলে যায় জাতীয় দলের দরজা। যেটা আমাদের রিয়াদ খানের জন্যও খুলছে।

রিয়াদও ফিজি দলে সুযোগ হলে ‘না’ বলবেন না। একটু ম্লান হেসে বললেন, ‘ওরা ডাকলে তো অবশ্যই খেলবো। কিন্তু এখানে ক্রিকেট দিয়ে তো ক্যারিয়ার হয় না। আর সবচেয়ে বড় কথা মনটা তো বাংলাদেশে পড়ে আছে। দিনশেষে বসে বসে বাংলাদেশের খেলা দেখি।’এভাবেই আমাদের ক্রিকেট ছড়িয়ে যায়।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View