ঢাকা : ১৯ আগস্ট, ২০১৭, শনিবার, ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site

বিশ্বসেরা ফুটবল একাদশে বার্সা-রিয়ালের দাপট

২০১৬ সালের বিশ্বসেরা একাদশ বাছাইয়ে ৫৫ জনের তালিকা প্রকাশ করেছে ফিফা ফিফপ্রো (পেশাদার খেলোয়াড়দের আন্তর্জাতিক ফেডারেশন)। যার মধ্যে ৩১ জনই গত এক বছরে বার্সেলোনা, বায়ার্ন মিউনিখ ও রিয়াল মাদ্রিদের জার্সিতে খেলেছেন।

দুই স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সা-রিয়ালের দাপট বললেও ভুল হবে না। দু’দলের ২০ জন (ব্রাভো ও আলেভেজ বাদে বার্সা ৯, রিয়াল ১১) সেরা একাদশের দৌড়ে রয়েছেন। এ নিয়ে ওয়ার্ল্ড ইলেভেন অ্যাওয়ার্ড ১২ বছরে পা রাখছে। ৭৫টি দেশের পেশাদার খেলোয়াড়রা ভোট দেবেন। যেখানে ২৫ হাজারেরও বেশি ভোটের মাধ্যমে বিশ্বসেরা টিম চূড়ান্ত হবে।

গতবারও সংক্ষিপ্ত তালিকা থেকে বার্সা ও রিয়ালের প্রথম পছন্দের খেলোয়াড়রাই চূড়ান্ত একাদশে জায়গা করে নেন। দু’দলের চারজন করে আটজন সেরাদের কাতারে নাম লেখান। সংক্ষিপ্ত তালিকায় থাকা বার্সার গোলরক্ষক ক্লদিও ব্রাভো ম্যানসিটিতে ও রাইটব্যাক দানি আলভেস চলতি মৌসুমে জুভেন্টাসে পাড়ি জমান।55

লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেল, নেইমার ও লুইস সুয়ারেজ চূড়ান্ত টিমে থাকার আশা করতেই পারেন। যা আগামী বছরের ৯ জানুয়ারি ব্যালন ডি’র অ্যাওয়ার্ড (বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার) অনুষ্ঠানে ঘোষণা করা হবে।

চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনাল ও তৃতীয় থেকে লা লিগা শেষ করলেও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের মাত্র দু’জন সুযোগ পেয়েছেন- ইউরোর গোল্ডেন বল ও গোল্ডেন বুট জয়ী অ্যান্তোনি গ্রিজম্যান, দিয়েগো গোদিন।

বায়ার্ন মিউনিখ তাদের ৯জন খেলোয়াড় দিয়ে প্রভাব বিস্তার করতে পারে। এর মধ্যে অন্যতম রবার্ট লেভানডফস্কি, থমাস মুলার ও গতবারের সেরা গোলরক্ষক ম্যানুয়েল নয়্যার।

সিরি আ জায়ান্ট জুভেন্টাসের প্রতিনিধি সাতজন। যদিও চলতি মৌসুমে জুভিদের জার্সি গায়ে জড়ান গঞ্জালো হিগুয়েইন ও আলভেজ।

প্রিমিয়ার লিগ থেকে সবচেয়ে বেশি চারজন সদস্য ম্যানসিটির। আর্সেনাল, চেলসি, ম্যানইউর তিনজন করে আর ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন লিচেস্টার সিটির দু’জন- জেমি ভার্ডি ও এন’গোলো কান্তে (বর্তমানে চেলসিতে)।

পিএফএ বর্ষসেরা খেলোয়াড় হলেও লিচেস্টারের রিয়াদ মাহরেজের জায়গা হয়নি। একমাত্র ইংলিশ ফুটবলার হিসেবে স্থান পেয়েছেন জেমি ভার্ডি।

এ প্রথম সংক্ষিপ্ত তালিকায় নাম লেখাতে ব্যর্থ হলেন ম্যানইউর ইংলিশ অধিনায়ক ওয়েইন রুনি। তার সঙ্গী আন্দ্রে পিরলো। অর্থাৎ, জিয়ানলুইজি বুফন ও রোনালদো বাকি দুই সদস্য যারা টানা ১২ বছর মর্যাদাপূর্ণ এ তালিকায় মনোনীত হওয়ার গৌরব অর্জন করলেন।

অভিষিক্ত হয়েছেন গ্রিজম্যান, কান্তে, ভার্ডি, আর্সেনালে হেক্টর বেলারিন, জুভেন্টানেস লিওনার্দো বোনুচ্চি ও পাওলো দিবালা, পিএসজির সার্জি অরিয়ার, ম্যানসিটির কেভিন ডি ব্রুইন ও ওয়েস্ট জামের দিমিত্রি পায়েত।

সবচেয়ে বেশি স্পেনের ১০ জন খেলোয়াড় ৫৫ জনের তালিকায় স্থান পেয়েছেন। জার্মানির সাতজন, ফ্রান্সের ছয়জন, আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের পাঁচজন করে। ইউরোজয়ী পর্তুগালের দু’জন-  রোনালদো ও পেপে।

গোলরক্ষক (৫): ক্লদিও ব্রাভো (চিলি/বার্সেলোনা/ম্যানসিটি), জিয়ানলুইজি বুফন (ইতালি/জুভেন্টাস), ডেভিড ডি গিয়া (স্পেন/ম্যান ইউনাইটেড), কেইলর নাভাস (কোস্টারিকা/রিয়াল মাদ্রিদ), ম্যানুয়েল নয়্যার (জার্মানি/বায়ার্ন মিউনিখ)।

ডিফেন্ডার (২০): ডেভিড আলাবা (অস্ট্রিয়া/বায়ার্ন মিউনিখ), জর্ডি আলবা (স্পেন/বার্সেলোনা), সার্জি অরিয়ার (আইভরি কোস্ট/পিএসজি), হেক্টর বেলারিন (স্পেন/আর্সেনাল), জেরোম বোয়াটেং (জার্মানি/বায়ার্ন মিউনিখ), লিওনার্ডো বোনুচ্চি (ইতালি/জুভেন্টাস), ড্যানিয়েল কারভাজাল (স্পেন/রিয়াল মাদ্রিদ), জর্জিও কিয়েলিনি (ইতালি/জুভেন্টাস), দানি আলভেজ (ব্রাজিল/বার্সেলোনা/জুভেন্টাস), ডেভিড লুইজ (ব্রাজিল/পিএসজি/চেলসি), দিয়েগো গোদিন (উরুগুয়ে/অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), ম্যাট হামেলস (জার্মানি/বরুসিয়া ডর্টমুন্ড/বায়ার্ন মিউনিখ), ফিলিপ লাম (জার্মানি/বায়ার্ন মিউনিখ), মার্সেলো (ব্রাজিল/রিয়াল মাদ্রিদ), হ্যাভিয়ের মাশ্চেরানো (আর্জেন্টিনা/বার্সেলোনা), পেপে (পর্তুগাল/রিয়াল মাদ্রিদ), জেরার্ড পিকে (স্পেন/বার্সেলোনা), সার্জিও রামোস (স্পেন/রিয়াল মাদ্রিদ), থিয়াগো সিলভা (ব্রাজিল/পিএসজি) ও রাফায়েল ভারন (ফ্রান্স/রিয়াল মাদ্রিদ)।

মিডফিল্ডার (১৫): জাবি আলোনসো (স্পেন/বায়ার্ন মিউনিখ), সার্জিও বুসকেটস (স্পেন/বার্সেলোনা), কেভিন ডি ব্রুইন (বেলজিয়াম/ম্যান সিটি), ইডেন হ্যাজার্ড (বেলজিয়াম/চেলসি), আন্দ্রেস ইনিয়েস্তা (স্পেন/বার্সেলোনা), এন’গোলো কান্তে (ফ্রান্স/লিচেস্টার সিটি/চেলসি), টনি ক্রুস (জার্মানি/রিয়াল মাদ্রিদ), লুকা মদরিচ (ক্রোয়েশিয়া/রিয়াল মাদ্রিদ), মেসুত ওজিল (জার্মানি/আর্সেনাল), দিমিত্রি পায়েত (ফ্রান্স/ওয়েস্টহাম), পল পগবা (ফ্রান্স/জুভেন্টাস/ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড), ইভান রাকিটিচ (ক্রোয়েশিয়া/বার্সেলোনা), ডেভিড সিলভা (স্পেন/ম্যান সিটি), মার্কো ভেরাত্তি (ইতালি/পিএসজি), আর্তুরো ভিদাল (চিলি/বায়ার্ন মিউনিখ)।

ফরোয়ার্ড (১৫): সার্জিও আগুয়েরো (আর্জেন্টিনা/ম্যানসিটি), গ্যারেথ বেল (ওয়েলস/রিয়াল মাদ্রিদ), করিম বেনজেমা (ফ্রান্স/রিয়াল মাদ্রিদ), ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো (পর্তুগাল/রিয়াল মাদ্রিদ), পাওলো দিবালা (আর্জেন্টিনা/জুভেন্টাস), অ্যান্তোনি গ্রিজম্যান (ফ্রান্স/অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ), গঞ্জালো হিগুয়েইন (আর্জেন্টিনা/নাপোলি/জুভেন্টাস), জ্লাতান ইব্রাহিমোভিচ (সুইডেন/পিএসজি/ম্যান ইউনাইটেড), রবার্ট লেভানডফস্কি (পোল্যান্ড/বায়ার্ন মিউনিখ), লিওনেল মেসি (আর্জেন্টিনা/বার্সেলোনা), থমাস মুলার (জার্মানি/বায়ার্ন মিউনিখ), নেইমার (ব্রাজিল/বার্সেলোনা), অ্যালেক্সিস সানচেজ (চিলি/আর্সেনাল), লুইস সুয়ারেজ (উরুগুয়ে/বার্সেলোনা), জেমি ভার্ডি (ইংল্যান্ড/লিচেস্টার সিটি)।

এ সম্পর্কিত আরও

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *