Mountain View

মোহাম্মদপুরে যুবলীগ কার্যালয় ভাঙচুর, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি লুট

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১০, ২০১৭ at ১:০৪ অপরাহ্ণ

রাজধানীর মোহাম্মাদপুর সাতমসজিদ হাউজিং এলাকায় ৩৩ নং ওয়ার্ড যুবলীগের কার্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। হামলাকারীরা জাতীয় শোক দিবসের জন্য তৈরিকৃত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের প্রতিকৃতি লুট করে নিয়ে গেছে।

গতকাল বুধবার রাত দশটার কিছু পর এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার সময় সাতমসজিদ হাউজিং যুবলীগ সভাপতি জাকির হোসেন উকিল কার্যালয়েই ছিলেন। সামান্যের জন্য তার গায়ে আঘাত লাগেনি।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাত সোয়া দশটার দিকে ৩০/৩৫ জনের একটি দল প্রথমে যুবলীগ কার্যালয়ে হামলা করে। এসময় কার্যালয়ের সামনে থাকা একটি মোটরসাইকেল ভেঙে দেয় তারা। হামলাকারীদের বেশিরভাগই দেশীয় অস্ত্র নিয়ে এসেছিল। তাই স্থানীয়রা বাধা দিতে পারেনি।

যুবলীগের কার্যালয় ছাড়াও হামলাকারীরা পাশের একটি সেলুনে হামলা করে। এসময় তিনজন গুরুতর আহত হয় এবং সেলুনটি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আশেপাশের দোকান লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করলে একটি খাবার হোটেলসহ কয়েকটি দোকানও ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

আহতদের শেরে-বাংলা-নগর শহিদ সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। হাসপাতালের কর্মীরা জানান, আহতদের সবাইকে চাপাতি ও দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছে, তবে সবাই আশঙ্কামুক্ত।

সাতমসজিদ হাউজিং যুবলীগ সভাপতি জাকির হোসেন উকিল ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘রাজনৈতিক কারণেই এ হামলা। হামলাটা আমাকে লক্ষ্য করেই করা হয়েছিল। আমি অল্পের জন্য বেঁচে গেছি। আমার অফিস, বাইক ভেঙেছে। আমার ডিসের সাব-কন্ট্রোল ছিল তা ভেঙেছে। কিন্তু ওরা কেন এলাকায় ভাঙচুর করলো? সাধারণ মানুষের ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠান কেন ভাঙা হলো? জাতীয় শোক দিবসের জন্য জাতির পিতার ছবিসহ বেশ কিছু সাইনবোর্ড তৈরি করেছিলাম, সেগুলো লুট করার উদ্দেশ্য কি?’

হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে জনবহুল সাতমসজিদ হাউজিং এবং চাঁদ উদ্যান এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।

ক্ষতিগ্রস্ত হোটেল ব্যবসায়ী ঢাকাটাইমসকে বলেন, ‘ইট দুইডা মাইরা গ্লাসডা ভাইঙ্গা দিছে। পাতিলে কোপ দিছে। ইট একটা আর একটু হইলে মাথায় লাকতো। আমগো দোষটা কি বাবা?’

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View