Mountain View

শিবচরে পানিবন্দী ৪ ইউনিয়নের মানুষ

প্রকাশিতঃ আগস্ট ১৭, ২০১৭ at ৭:২৫ অপরাহ্ণ

পদ্মা নদীতে পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় পদ্মায় পানি বেড়েছে ৮ সে.মি.। এতে করে মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার ৪ ইউনিয়নের মানুষ পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। কাঠালবাড়ি ফেরিঘাটের পল্টুন পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে। এছাড়াও শিবচরের পদ্মা বেষ্টিত জনবিচ্ছিন্ন চরাঞ্চলের কাঠালবাড়ি ও চরজানাজাতে ব্যাপক নদী ভাঙ্গণ দেখা দিয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নদী ভাঙ্গণে শিবচরের কাঠালবাড়ির কাউলিপাড়া দারম্নল উলুম কওমী মাদ্রাসাসহ শতাধিক বাড়ি ঘর নদীগর্ভে বিলিন হয়ে গেছে। এছাড়াও ঘর বাড়ি স্থাপনা সরিয়ে নিতে হিমশিম খাচ্ছে ক্ষতিগ্রস্তরা। হুমকিতে রয়েছে পদ্মা বেষ্টিত জনবিচ্ছিন্ন চরাঞ্চলের কাঠালবাড়ি ও চরজানাজাত ইউনিয়নের একাধিক স্কুল, একটি ইউনিয়ন পরিষদসহ শত শত ঘর বাড়ি।

এদিকে পানি বাড়ায় এ দুটি ইউনিয়ন ছাড়াও চরাঞ্চলের মাদবরচর ও বন্দরখোলার হাজার হাজার পরিবার পানিবন্দী জীবনযাপন করছে। অনেকের ঘরেই পানি ঢুকে পড়েছে। বন্যা আক্রান্তরা মানবেতর জীবনযাপন করলেও এখনো ত্রাণ তৎপরতা শুরু হয়নি।
বন্যার পানি এখনও বিপদ সীমার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হলেও চরাঞ্চলের মানুষ পানি বন্দী হয়ে পড়েছে।

অপর দিকে অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধির কারণে শিবচরের কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া নৌরুটে কাঁঠালবাড়ী ঘাটে ফেরিতে গাড়ি ওঠা-নামার পল্টুন তলিয়ে গেছে। তাই এতে করে প্রায় প্রতিদিনই ঘাট কর্তৃপক্ষ পল্টুন মেরামত করছে। ঘাটে অবস্থানরত দুরপাল্লার গাড়ি ঝুঁকি নিয়ে ডুবে যাওয়া পল্টুন দিয়ে ফেরিতে ওঠা-নামা করছে।

কাঠালবাড়ি ঘাটের সহকারী ব্যবস্থাপক রহুল আমিন মিয়া জানান, পদ্মায় অস্বাভাবিক পানি বৃদ্ধির কারণে কাঁঠালবাড়ি ফেরি ঘাটের পল্টুনের র‍্যাম মাঝে মাঝে উঠানো-নামানো হচ্ছে। তবে ফেরি চলাচল স্বাভাবিক আছে। ঘাটে ষোলটি ফেরি স্বাভাবিকভাবেই চলাচল করছে।

এ সম্পর্কিত আরও

Mountain View