ঢাকা : ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭, মঙ্গলবার, ৮:২৮ অপরাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ > জাতীয় > নাসরিনকে বিয়ে করেননি ক্রিকেটার সানি

নাসরিনকে বিয়ে করেননি ক্রিকেটার সানি

ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে করা নারী নির্যাতনের মামলা ভুল তথ্য দিয়ে দায়ের করা হয়েছে। আদালতে দেয়া চুড়ান্ত প্রতিবেদনে একথা জানিয়েছে পুলিশ।

আজ শুক্রবার ঢাকার অপরাধ, তথ্য ও প্রসিকিউশন বিভাগের উপকমিশনার আনিসুর রহমান গণমাধমকে বিষয়টি জানিয়েছেন।

আনিসুর জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের সাধারণ নিবন্ধন শাখায় চূড়ান্ত এই প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে।

এ বিষয়ে সানির আইনজীবী এম জুয়েল আহমেদ জানান, সানি ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়নি বলে মোহাম্মদপুর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক মোহাম্মদ ইয়াহহিয়া এ চূড়ান্ত প্রতিবেদন দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) হরলাল মল্লিক বলেন, চূড়ান্ত প্রতিবেদন আসায় মামলাটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে পাঠানো হবে। সেখানেই মামলার বাকি কার্যক্রম অনুষ্ঠিত হবে।

চূড়ান্ত প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, মামলার বাদী ভুল তথ্য দিয়ে মামলাটি দায়ের করেছেন। তাই আসামিদের অব্যাহতির আবেদন করে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হয়েছে।

এ ছাড়া আরাফাত সানির সঙ্গে মামলার বাদীর যে বিবাহ ও কাবিন হয়েছে, তার কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি। সানি ও নাসরিনের রেস্তোরাঁয় বিয়ে হয়েছে বলেও কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। সানির মা নার্গিস সুলতানা লোকজনকে নিয়ে মামলার বাদীকে মারধর করেছেন বলে যে অভিযোগ আছে, তারও কোনো সাক্ষ্য-প্রমাণ পাওয়া যায়নি।

গত ১ ফেব্রুয়ারি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে সানি ও তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে মামলা করেন সানির স্ত্রী দাবিদার নাসরিন সুলতানা। এর আগে সানি তথ্যপ্রযুক্তি মামলায় প্রায় এক মাস কারাগারে আটক ছিলেন।

তদন্ত প্রতিবেদন ৩১ আগস্ট

এর আগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে করা মামলায় ক্রিকেটার আরাফাত সানির বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলে আগামী ৩১ আগস্ট দিন ধার্য করেন আদালত।

গত সপ্তাহে ঢাকার মহানগর হাকিম জিয়ারুল ইসলাম প্রতিবেদন দাখিলের এই দিন ধার্য করেন।

আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) হরলাল মল্লিক সাংবাদিকদের জানান, ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে মামলার তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু মোহাম্মদপুর থানা পুলিশ প্রতিবেদন দাখিল না করায় সময়ের আবেদন করে। ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য নতুন করে দিন ধার্য করেন।

গত ২২ জানুয়ারি সকালে ঢাকার আমিনবাজার এলাকা থেকে সানিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) আইনের ৫৭ ধারায় অভিযোগ আনা হয়। এ মামলায় একদিনের রিমান্ড ভোগ করেন তিনি। পরবর্তী সময়ে তাঁর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতন ও যৌতুকের দুটি মামলা করা হয়। সেসব মামলা থেকেও জামিন পান সানি।

অন্যদিকে এর আগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে করা মামলায় জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানির শেষবারের মতো জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেন আদালত।

সানির আইনজীবী এম জুয়েল আহম্মেদ জানান, সানির জামিনের মেয়াদ শেষ হলে আদালতে নুতন করে জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন করি। আদালত শুনানি শেষে শেষবারের মতো জামিনের মেয়াদ বৃদ্ধি করেন এবং বাদীর সঙ্গে আপস করার নির্দেশ দেন।

এর আগে সানির স্ত্রী নাসরিনের করা আরেকটি যৌতুকের মামলায় ঢাকার মহানগর হাকিম জাকির হোসেন টিপু ক্রিকেটার সানির জামিন বাতিল করে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। সে গ্রেপ্তারি পরোয়ানার পর আজ সানি আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করলে বিচারক পুনরায় সানির জামিন মঞ্জুর করেন।

গত ২২ জানুয়ারি সকালে ঢাকার আমিনবাজার এলাকা থেকে সানিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের ৫৭ ধারায় অভিযোগ আনা হয়। এ মামলায় একদিনের রিমান্ড ভোগ করেন তিনি। এর পর নারী ও শিশু নির্যাতনের মামলা এবং তথ্যপ্রযুক্তি মামলায় জামিন পান সানি।

এর আগে গত ৫ জানুয়ারি নাসরিন সুলতানা নামের এক তরুণী সানির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। তাঁর দাবি, সানির সঙ্গে তাঁর বৈবাহিক সম্পর্ক আছে। তাঁদের অন্তরঙ্গ কিছু ছবি সানি ফেসবুকসহ বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে দেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *