ঢাকাঃ মঙ্গলবার , ২৪ অক্টোবর ২০১৭ ৬:৩৬ পূর্বাহ্ণ
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / ১৭ রানে অল আউট, কেউই পারলো না দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে

১৭ রানে অল আউট, কেউই পারলো না দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে

প্রকাশিত :


স্পোর্টস ডেস্ক,বিডি টোয়েন্টিফোর টাইমসঃ ব্যাপারটি হাস্যকরও বটে। ১১ জন ব্যাটিং করে করলেন মাত্র ১৭ রান। স্কোর লাইন দেখুন, ১,৩,০,২,৭,০,১ ,০,০,৩,০*! স্কোরকার্ড দেখে নিশ্চিত বলবেন, আরে এমন স্কোরকার্ড তো বাপের জনমেও দেখিনি।তবে হ্যাঁ, বাংলাদেশের নারী প্রিমিয়ার লিগে এমন হাস্যকর ঘটনাটি ঘটেছে। দলের ১১ জন ব্যাটারের একজনও পারলেন না দুই অঙ্কের কোটা ছুঁতে। সর্বোচ্চ রানের স্কোরটি আসে মিস্টার এক্সট্রা থেকে। এমনই এক অদ্ভুত ম্যাচ হয়েছে নারীদের ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে।রোববার ইন্দিরা রোড ক্রীড়া চক্রের বিপক্ষে ১০ উইকেটেই জিতেছে খেলাঘর সমাজ কল্যাণ সমিতি। দিনের অপর ম্যাচে দারুণ জয় পেয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন রূপালী ব্যাংক। শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে মাত্র ২ রানে কলাবাগান ক্রীড়া চক্রকে হারায় দলটি।সাভারের বিকেএসপিতে টস হেরে ব্যাট করতে নামে ইন্দিরা রোড। শুরুতেই রিতু মনি ও ভারতীয় রিক্রুট রেনি যাদবের তোপে পড়ে দলটি। টিকে থাকার চেষ্টা করছিলেন ব্যাটাররা। অনেকক্ষণ এভাবে সামলে গেছেন। এই কারণেই ৩৪ ওভার পর্যন্ত গেছে তাদের ইনিংস।কিন্তু দলগত রান পেরুতে পারেনি ওই ওভারের সংখ্যাটিকেও! কি আশ্চর্য! ৩৪ ওভারে মাত্র ৩১ রানেই অলআউট হয়ে যায় ইন্দিরা রোড! সর্বোচ্চ ৭ রান করেন রিতা সাহা। খেলাঘরের রেনু ৪টি উইকেট নেন ৬ রানের খরচায়। আর ৮ রানের বিনিময়ে ৪টি পান রিতু।৩২ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ৮.৩ ওভারেই কোনো উইকেট না হারিয়ে জয় তুলে নেয় খেলাঘর। রুবাইয়া হায়দার ১৩ ও একা মল্লিক ৭ রানে অপরাজিত থাকেন।

বিকেএসপিতেই অন্য মাঠে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে রূপালী ব্যাংক। শুরুটাও করে দুর্দান্ত। ১১২ রানের ওপেনিং জুটি এনে দেন সানজিদা ইসলাম ও আয়শা রহমান শুকতারা। এ জুটির পর আর কোনো বড় জুটি না হওয়ায় ৮ উইকেটে ২০০ রানে সন্তুষ্ট থাকতে হয় দলটিকে।তাদের পক্ষে সানজিদা সর্বোচ্চ ৬০ রান করেন ১০৪ বল মোকাবেলা করে। এছাড়া শুকতারা ৯৫ বলে করেন ৪৬ রান। শেষদিকে তাজিয়া আক্তার ৩৮ বলে ৪১ রানের আগ্রাসী ইনিংস খেলেন। কলাবাগানের পক্ষে ২টি করে উইকেট পান পান্না ঘোষ, লতা মণ্ডল ও সুলতানা খাতুন।২০১ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে শুরুটা ভালো হয়নি কলাবাগানের। দলীয় ২৩ রানেই দুই ওপেনারকে হারায় তারা। এরপর শায়লা শারমিন ও লতার ১১০ রানের জুটিতে দারুণ প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়েছিল দলটি।তবে শেষদিকের ব্যাটারদের ব্যর্থতায় ৭ উইকেটে ১৯৮ রান করতে সমর্থ হয় দলটি। ৯৫ বলে দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬৮ রানের ইনিংস খেলেন লতা। শায়লা ৪৮ ও সুলতানা ইয়াসমিন ২৫ রান করেন। রূপালী ব্যাংকের পক্ষে ৩টি উইকেট নিয়েছেন তাজিয়া।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

‘মেসিকে হারিয়ে বর্ষসেরা পুরস্কার জিতেছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো’

লিওনেল মেসিকে হারিয়ে টানা দ্বিতীয়বারের মতো ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার জিতেছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সোমবার লন্ডনের …