Mountain View

পেসারদের নিয়ে আশাবাদী রুবেল

প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৭ at ১:০২ পূর্বাহ্ণ

 

দক্ষিণ আফ্রিকার ভিন্ন কন্ডিশন ও বাউন্সি উইকেট থেকে সুবিধা পাবেন পেসাররা। কন্ডিশন বিবেচনায় বাংলাদেশ দলে রয়েছে পাঁচ পেসার। মুস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে পেস আক্রমণে রয়েছেন রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম ও শুভাশিস রায়। সতীর্থদের নিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী রুবেল জানালেন, দক্ষিণ আফ্রিকায় পেসারদের সম্ভাবনার কথা।

দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম টেস্টের আগে তিন দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ দল। বেনোনিতে ক্রিকেট দক্ষিণ আফ্রিকা আমন্ত্রিত একাদশের বিপক্ষে সেই ম্যাচে বাংলাদেশের বোলাররা নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন এক ইনিংসে। তবে রুবেল সেই ম্যাচে খেলতে পারেননি। ভিসা জটিলতায় তার দক্ষিণ আফ্রিকায় যাওয়াই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল।

শেষ পর্যন্ত রুবেল দক্ষিণ আফ্রিকা গেছেন। প্রস্তুতি ম্যাচে খেলতে না পারলেও দ্রুতই দক্ষিণ আফ্রিকার কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী ডানহাতি এই পেসার। জানালেন, একাদশে সুযোগ পেলে দিতে চান প্রতিদান।

সোমবার অনুশীলন শেষে রুবেল বলেছেন, ‘আমরা জানি, দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেট থেকে সহায়তা পায় ফাস্ট বোলাররা। এখানে উইকেট বাউন্সি হয়, কন্ডিশন অনুযায়ী মাঝেমধ্যে সুইং করে। পেস বোলারদের জন্য খুব আদর্শ জায়গা। আমরা যারা পেস বোলার আছি, ভালো পরিকল্পনা করে জায়গামতো বোলিং করতে পারি; মনে হয় সফল হতে পারব।’

বাউন্সি উইকেটে বোলিংয়ের জন্য বাংলাদেশের পেসাররা কেমন পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন, সেটাও জানালেন রুবেল, ‘যেহেতু বাউন্সি উইকেট, লাইন-লেংথ ঠিক রেখে বোলিং করতে হবে। এ ধরনের উইকেটে একটু পেছনে বোলিং করলে ব্যাটসম্যানদের জন্য সহজ হয়ে যাবে। আশা করি, আমরা দ্রুত এটা রপ্ত করে নিতে পারব।’

আগামী বৃহস্পতিবার পচেফ্স্ট্রুমে শুরু হবে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথম টেস্ট। রোববার পচেফ্স্ট্রুমে পৌঁছে সোমবার প্রথম টেস্টের ভেন্যু সেনউইস পার্কে অনুশীলন করেছেন মুশফিক-রুবেলরা। প্রথম টেস্টের আগে আরো দুদিন অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছে সফরকারীরা।

এ সম্পর্কিত আরও