রবিবার , অক্টোবর ২২ ২০১৭
A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ / খেলাধুলা / যে কারণে ইতিহাসের সাক্ষী হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট ম্যাচ

যে কারণে ইতিহাসের সাক্ষী হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা টেস্ট ম্যাচ

প্রকাশিত :

বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে ক্রিকেট ইতিহাসের অংশ হতে যাচ্ছে সিরিজের প্রথম টেস্ট। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর পচেফস্ট্রুমে অনুষ্ঠিতব্য এই টেস্ট ম্যাচ দিয়েই যাত্রা শুরু করবে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) প্রণয়ন করা নতুন কিছু আইন। ‘কোড অব কন্ডাক্টে’ বেশ কিছু পরিবর্তন এনেছে আইসিসি। অক্টোবর থেকে কার্যকর হওয়ার কথা থাকলেও তিন দিন এগিয়ে বাংলাদেশ ও অক্ষিন আফ্রিকার সিরিজের প্রথম টেস্ট দিয়েই শুরু হচ্ছে আইসিসির নতুন নিয়ম।

নতুন নিয়মে বদলে গেছে ব্যাটের মাপ। কড়া নজরদাড়িতে থাকবেন ব্যাটসম্যানরা। ব্যাটের পুরুত্ব হবে ৬৭ মিলিমিটার, ব্যাটের প্রান্তগুলোর নির্ধারিত মাপ ৪০ মিলিমিটার।

অনফিল্ড আম্পায়ারদের কাছে থাকবে বিশেষ ছাঁচ, যার মাধ্যমে মাপা যাবে ব্যাটের পুরুত্ব। তবে ব্যাটসম্যানরা অন্তত একটি বিষয়ে শান্তি পাবেন এখন। পপিং ক্রিজ ক্রস করার পর ব্যাট বা পা মাটি থেকে ওপরে উঠলে এখন আর আউট হবে না ব্যাটসম্যানরা। বর্তমানে দাগ পার হলেও যদি স্ট্যাম্প ভাঙার সময় ব্যাটসম্যানের পা কিংবা ব্যাট মাটিতে না থাকে, তবে আউট বলে বিবেচিত হন।

আম্পায়ারদেরও দেওয়া হয়েছে বিশেষ ক্ষমতা। মাঠের মধ্যে কোনো ক্রিকেটার অশোভন আচরণ করলে তাকে মাঠ থেকে বের করে দিতে পারবেন আম্পায়ার।

অনেকটা ফুটবলের ‘লাল কার্ড’ এর মতো। তবে এই ‘লাল কার্ড’ দৃশ্যমান না হলেও আচরণের মাত্রা ছাড়ালেই ফুটবলের মতোই মাঠ ছেড়ে ড্রেসিংরুমে আশ্রয় নিতে হবে ক্রিকেটারদের। ‘লেভেল তিন’ হলে সেটা নির্দিষ্ট কিছু ওভারের জন্য। আর যদি অপরাধের মাত্রা ‘লেভেল চারে’র হয়, সে ক্ষেত্রে ম্যাচের বাকি সময়ের জন্য নিষিদ্ধ হবেন। ব্যাটসম্যানের ক্ষেত্রে তাঁর নামের পাশে ‘রিটায়ার্ড আউট’ লেখা হবে।

‘লাল কার্ডে’র পাশাপাশি ডিআরএসেও পরিবর্তন আসবে। এত দিন পর্যন্ত ডিআরএসের সিদ্ধান্ত বিপক্ষে গেলে দলের কোটা থেকে একটি বাদ চলে যেত। এখন থেকে ডিআরএসের সিদ্ধান্ত বিপক্ষে গেলেও সেটি যদি ‘আম্পায়ার্স কল’ হয়, তাহলে রিভিউয়ের কোটা কমবে না। তবে টেস্টে ৮০ ওভারের পর ডিআরএসের কোটা নতুন করে শুরু হওয়ার ব্যাপারটি বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আইসিসি। এছাড়া ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে টি-টোয়েন্টিতেও চালু হচ্ছে ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম (ডিআরএস)।

নতুন নিয়মের প্রয়োগ সম্পর্কে আইসসির জেনারেল ম্যানেজার জিওফ অ্যালারডাইস বলেন, গেল মে মাসে ক্রিকেটের কিছু নিয়মে পরিবর্তন আনার জন্য আইসিসিকে প্রস্তাব দেয় ঐতিহ্যবাহী মেরিলিবোর্ন ক্রিকেট ক্লাব (এমসিসি)। এরপর জুনে এক বৈঠকে সেই প্রস্তাবকে অনুমোদন দিয়েছে আইসিসির ক্রিকেট কমিটি। নতুন নিয়মে সম্পর্কে ধারণা দিতে আমরা আম্পাযারদের জন্য কর্মশালার ব্যবস্থা করেছিলাম। আমরা সবাই এখন প্রস্তুত আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে নতুন এই নিয়মের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিতে।

আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে নতুন নিয়মেই চলবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। তবে যেসব সিরিজ চলমান আছে তাতে নতুন নিয়ম প্রয়োগ হবে না। যেমন ভারত অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা ওয়েস্ট ইন্ডিজ ওয়ানডে সিরিজ তাই বাইরে থাকছে আইসিসির নতুন এই নিয়মের।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাশরাফির হাফসেঞ্চুরি

স্পোর্টস ডেস্ক: অধিনায়ক হিসেবে হাফ সেঞ্চুরির সামনে দাঁড়িয়ে মাশরাফি। বাংলাদেশের তৃতীয় অধিনায়ক হিসেবে ওয়ানডে ক্রিকেটে …