ইসরায়েলের কারণে ইউনেস্কো ছাড়ল যুক্তরাষ্ট্র

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৩, ২০১৭ at ১২:০৯ পূর্বাহ্ণ

ইসরাইল বিরোধী অবস্থানের অভিযোগ এনে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কো থেকে বেরিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আগামী বছরের শেষের দিকে তাদের এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে বৃহস্পতিবার এক ‍বিবৃতিতে জানিয়েছে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর।

বিবৃতিতে বলা হয়, ইউনেস্কোর বাড়তে থাকা বকেয়া বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্র অবগত রয়েছে এবং তারা মনে করছে এই প্রতিষ্ঠানটির পুনর্গঠন প্রয়োজন। এর আগে ২০১১ সালে প্যালেস্টাইনকে পূর্ণ সদস্যপদ দেয়ায় ইউনেস্কো’কে দেয়া তাদের বেশিরভাগ চাঁদার পরিমান কমিয়ে দেয় যুক্তরাষ্ট্র।

বিবিসি জানায়, ‘গত বছর পবিত্র স্থান জেরুজালেমের সঙ্গে ইহুদিদের সংশ্লিষ্টতার বিষয়টি একটি প্রস্তাবনায় উল্লেখ না করায় ইউনেস্কোর সঙ্গে সহযোগিতা স্থগিত করে ইসরায়েল। আর এ বছর পশ্চিম তীরের পুরনো হেবরন নগরীকে বিশ্বের ঐতিহ্যবাহী স্থান হিসাবে ঘোষণা করায়  ইউনেস্কোর সমালোচনা করেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।’

এছাড়া ইউনেস্কোর কয়েকটি সিদ্ধান্ত যুক্তরাষ্ট্র এবং ইসরায়েলের কাছ থেকে সমালোচনার শিকার হয়েছে। সেসবের প্রেক্ষাপটে যুক্তরাষ্ট্রের ইউনেস্কো ছাড়ার এ সিদ্ধান্ত। তবে বিশ্লেষকরা বলছেন, শুধু এসব কারণই নয়, যুক্তরাষ্ট্রের ইউনেস্কো ছাড়ার পেছনে আরও একটি উদ্দেশ্য কাজ করেছে। আর তা হচ্ছে, অর্থ বাঁচানো।

যুক্তরাষ্ট্রের ইউনেস্কো ছাড়ার এ সিদ্ধান্তকে ‘গভীর অনুতাপের’ বিষয় বলে উল্লেখ করেছেন ইউনেস্কোর মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা। তিনি বলেছেন, এই পদক্ষেপ জাতিসংঘ পরিবার এবং জোটবদ্ধতার জন্য একটি ক্ষতি।

এ সম্পর্কিত আরও