Mountain View

ইমরুল-মুশফিকের ব্যাটে টাইগারদের দলীয় শতক

প্রকাশিতঃ অক্টোবর ১৮, ২০১৭ at ৭:৪৩ অপরাহ্ণ

পার্লের বোল্যান্ড পার্কে অনুষ্ঠিত সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বাংলাদেশকে ৩৫৪ রানের পাহাড়সম টার্গেট দিয়েছে স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা। আর প্রোটিয়াদের ছুঁড়ে দেয়া লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা সাবধানী ভঙ্গিতে করলেও দ্বিতীয় ওভার থেকে হাত খুলে খেলা শুরু করেন দুই টাইগার ওপেনার তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস।

কিন্তু ইনিংসের অষ্টম ওভারের পঞ্চম বলে দারুণ খেলতে থাকা তামিমকে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে ফেলে প্রথম ব্রেক থ্রু এনে দেন প্রোটিয়া পেসার ডোয়াইন প্রিটোরিয়াস। ৩টি চারের সাহায্যে ২৫ বলে ২৩ রান করে ফিরতে হয় তামিমকে।তামিম ফিরে গেলে ইমরুলের সাথে ব্যাটিংয়ে যোগ দেন উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস। আর ক্রিজে এসেই মেরে খেলা শুরু করেন তিনি। ১ টি ছয় এবং একটি চারের সাহায্যে ১২ বলে ১৪ রান করার পর আন্দাইল ফেহলুকায়োর ১১তম ওভারের পঞ্চম বলে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন লিটন।

৬৯ রানে দ্রুতই দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়া বাংলাদেশের ইনিংস মেরামত করতে এরপর ইমরুলের সাথে ক্রিজে যোগ দেন মিস্টার ডিপেন্ডবল খ্যাত মুশফিকুর রহিম। এই দুই ব্যাটসম্যানের ব্যাটে ১৮ তম ওভারে দলীয় শত রান পার করেছে বাংলাদেশ। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১২ ওভার শেষে বাংলাদেশের সংগ্রহ ২ উইকেটে ১০০ রান। ইমরুল ও মুশফিক অপরাজিত আছেন যথাক্রমে ৪০ এবং ১৮ রানে।

এর আগে প্রথম ওয়ানডের মতো এই ম্যাচেও টসে জিতেছিলেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে আজ প্রোটিয়াদের শুরুতে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানান তিনি। কিন্তু মাশরাফির সিদ্ধান্তকে ভুল প্রমাণিত করে ব্যাটিংয়ে নেমে যথারীতি বাংলাদেশের বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে খেলা শুরু করেন প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানেরা।

বিশেষ করে হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্সের বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে রীতিমত অসহায়ই দেখা গেছে রুবেল-তাসকিনদের। ৭টি ছয় এবং ১৫টি চারের সাহায্যে মাত্র ১০৪ বলে ১৭৬ রানের ঝড়ো একটি ইনিংস খেলেছেন ডি ভিলিয়ার্স। বাংলাদেশের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত এটিই তাঁর সর্বোচ্চ রানের ইনিংস।এবি ছাড়াও ৯২ বলে ৮৫ রানের একটি কার্যকরী ইনিংস খেলেছেন আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান হাশিম আমলাও। তৃতীয় সর্বোচ্চ ৪৬ রান এসেছে আরেক ওপেনার কুইন্টন ডি ককের ব্যাট থেকে। বাংলাদেশের পক্ষে ৬২ রানে ৪ উইকেট শিকার করেছেন রুবেল হোসেন। অপরদিকে ৬০ রানে ২ উইকেট নিয়েছেন সাকিব আল হাসান।

বাংলাদেশ একাদশ-
মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, ইমরুল কায়েস, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, সাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, তাসকিন আহমেদ, রুবেল হোসেন।
দক্ষিণ আফ্রিকা একাদশ-
ফাফ ডু প্লেসিস (অধিনায়ক), হাশিম আমলা, ফারহান বেহারদিন, কুইন্টন ডি কক, এবি ডি ভিলিয়ার্স, জেপি ডুমিনি, ইমরান তাহির, ড্যান প্যাটারসন, আন্দাইল ফেহলুকায়ো, ডুয়াইন প্রিটোরিয়াস, কাগিসো রাবাদা।

এ সম্পর্কিত আরও

আপনিও লিখুন .. ফিচার কিংবা মতামত বিভাগে লেখা পাঠান [email protected] এই ইমেইল ঠিকানায়
সারাদেশ বিভাগে সংবাদকর্মী নেয়া হচ্ছে। আজই যোগাযোগ করুন আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুকের ইনবক্সে।