Mountain View

নাক কেটে ফেলা হবে দীপিকার!

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১৮, ২০১৭ at ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ

বিনোদন ডেস্কঃ কিছুদিন আগেই কর্ণি সেনার পক্ষ থেকে নাক কেটে দেওয়ার হুমকি পেয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা। কিন্তু কেন সেটা কি জানেন? তারা জানিয়েছিলেন, ‘ছবি মুক্তি পেলে সুর্পনখার মতই নাক কেটে দেওয়া হবে দীপিকার।’ এবার কর্ণি সেনার সুরে সুর মেলাল ক্ষত্রিয় যুব মহাসভা। এর সভাপতি অভিষেক বলেন, ‘সঞ্জয় লীলা তার ছবিতে পদ্মাবতীকে কলঙ্কিত করার চেষ্টা করেছেন। ছবিতে যেভাবে দেখানো হয়েছে, কোনো রাজপুত মহিলা ঐভাবে সাধারণ মানুষের সামনে নাচতেন না। এতে রাজপুতের সম্মানে আঘাত হেনেছেন ছবি নির্মাতারা। রাজপুতদের ইতিহাস সম্পর্কে কোনও ধারণা নেই নির্মাতার। কোনোভাবেই এই অন্যায়কে প্রশ্রয় দেয়া হবে না। দুজনকে দেশ ছেড়ে যেতে হবে, নয়ত ফল ভোগ করতে হবে’।

এদিকে ‘পদ্মাবতী’র মুক্তি নিয়ে চিন্তিত উত্তর প্রদেশ সরকার। এই পরিস্থিতিতে পদ্মাবতী মুক্তি পেলে আইন শৃঙ্খলার অবনতি হতে পারে রাজ্যে। এই মর্মে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রককে চিঠি দিয়েছে উত্তর প্রদেশ সরকার। ঠিক তার পরপরই অভিনেত্রী ও পরিচালকের মাথা কাটার হুমকি দেওয়া হলো। দীপিকাকে কর্ণি সেনার হুমকির পর নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন। অভিনেত্রীর বাড়ি ও অফিসে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ। মুম্বাইয়ের এক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দীপিকার নাক কেটে নেওয়ার হুমকির পর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, শুধু দীপিকাই নন, তালিকায় আছে পরিচালক বানসালির নামও। তাদের শিরশ্ছেদ করতে পারলে দেওয়া হবে ৫ কোটি রুপি। উত্তর প্রদেশের অখিল ভারতীয় ক্ষত্রিয় যুব মহাসভা নামে এক সংগঠনের পক্ষ থেকে ঘোষণাটি করেছেন সংগঠনের জাতীয় সভাপতি ঠাকুর অভিষেক। ‘পদ্মাবতী’ ছবির মুক্তি আটকাতে ইতোমধ্যে পথে নেমেছে রাজপুত কর্ণি সেনা। ছবি মুক্তির দিন অর্থাৎ ১ ডিসেম্বর ভারত বনধের ডাকও দিয়েছে এই সংগঠন।

এ সম্পর্কিত আরও