Mountain View

জোবায়দুল হক রাসেলে আশার আলো দেখছে পটুয়াখালীবাসী

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২২, ২০১৭ at ৭:১৭ পূর্বাহ্ণ

পটুয়াখালী সংবাদদাতা: জোবায়দুল হক রাসেল, সাবেক ছাত্রলীগ ও তরুণ আওয়ামীলীগ নেতা। ওয়ার্ড লেভেল থেকে ছাত্ররাজনীতির হাতেখড়ি, পরপর দুই কমিটিতে ছিলেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ এর সদস্য ও সহ-সভাপতি হিসেবে। সাবেক কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগ এর উপকমিটিরর সহ-সম্পাদক ও বর্তমানে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ও পটুয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগ এর কার্যনির্বাহী সদস্য।

রাসেল তৃণমূল থেকে উঠে আসা আওয়ামীলীগ এর দু:সময়ের পরিক্ষিত কর্মী। ভয়াল ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় শেখ হাসিনাকে বাঁচাতে রক্ত দিয়েছেন, ১/১১ এর পটপরিবর্তনে শেখ হাসিনা গ্রেপ্তার হলে তাঁর মুক্তি আন্দোলনে রাজপথে প্রতিবাদমুখর ছিলেন, বারবার কারা নির্যাতিত হয়েছেন, বিএনপি-জামাত জোট সরকার এর দু:শাসনামলে নির্যাতিত কর্মী হিসেবেই তাঁর পরিচিতি।

এত কারাভোগ, নির্যাতন আর শরীরে গ্রেনেডের স্প্রিন্টার এর ক্ষত বয়ে নিয়ে বেড়ালেও তাকে দেখে তা বোঝার উপায় নেই। সদা হাসিমুখে এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে উন্নয়নমূলক ও নানা ইতিবাচক কাজ করে গণমানুষের কাছে হয়েছেন ব্যপক সমাদৃত, নিজেকে তৈরি করে নিয়েছেন মানবিকতার মানসপুত্র হিসেবে।

বাবা হাইকোর্ট ডিভিশন এর বিচারপতি, আর সন্তান সাধারণ মানুষের নয়নমণি। থাকেন ঢাকায়, প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী; শত ব্যস্ততার মাঝেও উপলক্ষ্য ছাড়াই ছুটে যান শিকড়ের টানে, নিজ জন্মস্থান পটুয়াখালী জেলায়। পটুয়াখালী জেলার মাটি ও মানুষের সাথে যেন তাঁর আত্মার বন্ধন। এলাকায় গেলেই পোড় খাওয়া বৃদ্ধ, ঘামে ভেজা কৃষক, মজুর, শ্রমিক নির্বিশেষে বুকে জড়িয়ে নেন সবাইকে। হাসি-আনন্দে মেতে ওঠেন শিশু-কিশোর, উঠতি তরুণদের সাথে, তার অনুপ্রেরণায় ওদের কন্ঠে সুরের তালে “জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু” শ্লোগান ওঠে। সবার বিপদেআপদে, নিত্যপ্রয়োজনে সহযোগীতার হাত বাড়ান, নিরহংকারী, পরোপকারী রাসেল। পটুয়াখালীর সাধারণ মানুষ , বিশেষত উঠতি তরুণদের মাঝে এই তরুণ নেতার রয়েছে প্রশ্নাতীত গ্রহণযোগ্যতা, নিজ কর্মগুণে অর্জন করে নিয়েছেন তুমুল জনপ্রিয়তা।

এলাকাবাসীও মন-প্রাণ উজাড় করে আপন করে নিয়েছেন তাদের প্রিয় সন্তানকে। যেকোনো রাজনৈতিক-অরাজনৈতিক মঞ্চ থেকে উৎসব, পূজা-পার্বণ, সমাবেশ-মাহফিল, খেলাধুলা ; রাসেলকে তাদের মধ্যমণি করেই রাখেন। পটুয়াখালীবাসীর অফুরন্ত দোয়া-ভালোবাসায়, গণমানুষের একজন সাধারণ প্রতিনিধি হয়ে সেবার পরম ব্রত নিয়ে এগিয়ে চলেছেন মৃত্যুঞ্জয়ী বীর, জোবায়দুল হক রাসেল।

এ সম্পর্কিত আরও