Mountain View

আহমেদ রাকিবের কবিতা ‘অনন্ত নিদ্রার সুখ’

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৪, ২০১৭ at ২:১৯ পূর্বাহ্ণ

কবিতা

অনন্ত নিদ্রার সুখ

           -আহমেদ রাকিব

নগরের নিরেট কংক্রিট—যন্ত্রের বেদম দূষণ
আমার গ্রামীন চোখের ঘুম কেড়ে নিয়েছে
এখানে হিমঝরা রাতেও দুচোখে
অনিদ্রার অগ্নি জ্বলে–রাজপথের নগ্ন
আবর্জনার মত–জেঁকে থাকে পিঁচুটির স্তুপ, ক্লান্তির ধূসর পাহাড়;
তাই ইচ্ছে হয় ফিরে যাই আবার
কুহকিনী গ্রামে— দুচোখের ক্লান্তি ঘোচাতে
সন্ধ্যায়, নিহারিত রাতে
কোন এক শিরীষের বনে শুয়ে যাবো
পাতার নরম শরীর হতে ফোঁটা ফোঁটা শিশির
সবুজ ঘুম হয়ে আমার চোখে ঝরে যাবে
–নারীর স্নিগ্ধ ঠোঁটের মতন– ক্লান্ত পল্লবে
বহিয়ে দিবে অকূল ঘুমের নদী__
কোন এক রুপোলী মাছের মতন যে নদীর
স্রোতে আমি মিশে যাবো, দীর্ঘ গভীর ডুবে
তলিয়ে যাবো নদীর অতলে; বরফশীতল জলে
অনিদ্রার অগ্নি সব নিভে যাবে,
ক্লান্তির পিঁচুটি সব ভেসে যাবে—
শীতল গাহনে; এভাবে একডুবে কেটে যাবে
বহু যুগ বছর; অতঃপর কোন এক প্রহরের শেষে
ঘুম ভেঙে গেলে, একবার চোখ মেলে দেখে নেবো যখন
আকাশের পানে একখণ্ড মেঘ–সেখানে ভেসে
ওঠা আমার কবেকার কোন হারানো ধ্বস্ত মুখ,
তখন পড়বে কি কিছু মনে,
অনুভূতির শীতল শিহরণে কাঁপবে কি বুক__
অপলক এক মুহূর্ত পর
বৃষ্টির ফোঁটা হয়ে সেই মুখ ঝরে যাবে আমার চোখের ভেতর
সবকিছু ভুলে মিশে যাবো আবার মহানদীর জলে
আমায় ঘিরে রবে অনন্ত নিদ্রার সুখ।

এ সম্পর্কিত আরও