জেরুজালেম ইস্যুতে পুতিন-এরদোয়ান একসুরে

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ১২, ২০১৭ at ৩:৫৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ায় একসুরে এই পদক্ষেপের সমালোচনা করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোয়ান।

এই দুই নেতা মনে করেন, এর ফলে বিশ্বজুড়ে রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক উত্তেজনা বেড়ে যাবে।
একদিনের ঝটিকা সফরে সোমবার সিরিয়া থেকে তুরস্কে পৌঁছান পুতিন। এদিন তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় এরদোয়ানের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। বিশ্লেষকরা মনে করছেন, প্রধান প্রধান আঞ্চলিক দেশের সঙ্গে সুস্পর্ক বাড়ানোয়ই তার এ সফরের উদ্দেশ্য। মধ্যপ্রাচ্য ইস্যুতে অবস্থান সুসংহত করতে চান তিনি।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দেওয়ায় যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে মধ্যপ্রাচ্যে চরম নিন্দা ও বিক্ষোভের পরিবেশ বিরাজ করার মধ্যেই সিরিয়া, তুরস্ক ও মিশরে তড়িৎ সফর করছেন পুতিন। যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে ফুঁসে উঠেছে মুসলিম বিশ্ব। ট্রাম্পের এ পদক্ষেপের নিন্দা করেছে মধ্যপ্রাচ্য ও ইউরোপে খোদ তাদেরই পরীক্ষিত মিত্ররা।

আঙ্কারায় বৈঠক শেষে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এরদোয়ানের পাশাপাশি পুতিন বলেন, ফিলিস্তিনি ও ইসরায়েলিদের মধ্যে সরাসরি আলোচনার মাধ্যমে জেরুজালেমের মর্যাদার ইস্যুটির সুরাহা হওয়া উচিত। তিনি আরো বলেন, ‘রাশিয়া ও তুরস্ক উভয়েই বিশ্বাস করে, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেওয়ার ঘটনা মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতির জন্য উপকারী হবে না।’

বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জেরুজালেম ইসরায়েলের রাজধানীর স্বীকৃতি দেন এবং তেল আবিব থেকে যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাস জেরুজালেমে স্থানান্তরের প্রক্রিয়া শুরু করতে পররাষ্ট্র কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেন।

এ সম্পর্কিত আরও