Mountain View

কাপ্তাই উপজেলায় ৪ হাজারতম পাড়াকেন্দ্রের উদ্বোধন

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ২১, ২০১৮ at ২:০৫ অপরাহ্ণ

 

চার হাজারতম পাড়াকেন্দ্র উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

আজ রোববার ঢাকার সোনার গাঁ হোটেল থেকে রাঙ্গামাটির কাপ্তাই উপজেলার মিটিঙ্গ্যা ছড়িতে উপস্থিত নেতৃবৃন্দের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স করে এই পাড়াকেন্দ্র উদ্বোধন করেন তিনি।

পাড়াকেন্দ্রের মাধ্যমে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা, গর্ভবতী, প্রসূতি ও নবজাতকের স্বাস্থ্যসেবা, পুষ্টি, শিশু সুরক্ষা, শিশু ও নারী অধিকারবিষয়ক ধারণা প্রদান করা হয়ে থাকে। এ ছাড়া সভা, প্রশিক্ষণসহ বিভিন্ন সামাজিক কাজেও ব্যবহার করা হয় এই পাড়াকেন্দ্র। মূলত স্থানীয় একজন নারীকর্মী দিয়ে কেন্দ্রটি পরিচালনা করা হয়। এ কারণে ইতোমধ্যেই এসব পাড়াকেন্দ্র দুর্গম পাহাড়ি জনপদে ‘সার্ভিস সেন্টার’ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঢাকা প্রান্তে প্রধানমন্ত্রীর আন্তর্জাতিক বিষয়ক উপদেষ্টা ড. গওহর রিজভী, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং এমপি, সংসদে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি ওবায়দুল মুক্তাদির এমপি, পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা এবং ইউনিসেফ-এর কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ উপস্থিত ছিলেন।

১৯৮০ সালের দিকে পার্বত্য চট্টগ্রামের শিশুদের স্কুলমুখী করতে পাড়াকেন্দ্র স্থাপনের কাজ শুরু হয়। শিশুদের আনন্দের সঙ্গে প্রাক প্রাথমিক শিক্ষা প্রদানের পাশাপাশি পাড়াকেন্দ্রের দায়িত্বপ্রাপ্ত শিক্ষক ও কর্মীরা প্রসূতি মা ও কিশোরীদের বয়ঃসন্ধিকালের যত্ন ও পুষ্টি বিষয়ে কাজ করেন।

পাড়াকেন্দ্র স্থাপনের পর থেকে ইউনিসেফ এর পরিচালনায় অর্থ যোগান দিয়ে আসছে। গত ৩৭ বছরের দফায় দফায় মেয়াদ বাড়িয়ে পাড়া কেন্দ্রগুলো পরিচালিত হয়ে আসছে। গত ৩১ ডিসেম্বর চতুর্থ পর্যায়ের মেয়াদও শেষ হয়ে যায়। এর ফলে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অধীনস্থ সমন্বিত সমাজ উন্নয়ন প্রকল্প এবং পাড়া কেন্দ্রসমুহে দায়িত্বরত পাড়াকর্মীদের মধ্যে উৎকণ্ঠা দেখা দেয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উ শৈ সিং এমপি বলেন, ‘প্রকল্পের মেয়াদ শেষ হলেও পাড়াকেন্দ্রগুলোর ভবিষ্যত কোনোভাবেই অনিশ্চিত নয়। পার্বত্য চট্টগ্রাম টেকসই সামাজিক সেবা নামে আরো একটি প্রকল্প প্রস্তাব এখন প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে রয়েছে।’ শিগগির এই প্রকল্প পাস হবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

এ সম্পর্কিত আরও

আপনিও লিখুন .. ফিচার কিংবা মতামত বিভাগে লেখা পাঠান [email protected] এই ইমেইল ঠিকানায়
সারাদেশ বিভাগে সংবাদকর্মী নেয়া হচ্ছে। আজই যোগাযোগ করুন আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুকের ইনবক্সে।