Mountain View

দলে জায়গা পেয়েও বিজয়ের আফসোস

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ২১, ২০১৮ at ৬:৩৮ অপরাহ্ণ

এনামুল হক বিজয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ,তিনি শুধু নিজের জন্যই খেলেন। তাই তো বছর তিনেক আগে সিনিয়র ক্রিকেটারহওয়া সত্ত্বেও তাকে টপকে তামিমের সঙ্গে হোন সৌম্য সরকার। এগ্রেসিভ ক্রিকেটের জন্য জুড়ি নেই সৌম্যের, ঠিক তার বিপরীত ছিলেন বিজয়।তবে এবার ত্রিদেশীয় সিরিজে সৌম্য রূপে দেখা মেলল বিজয়ের। প্রথম ম্যাচে ১৪ বলে ১৯ ও দ্বিতীয় ম্যাচে ৩৭ বলে ৩৫ করে প্রত্যাশা মিটিয়েছেনসবার। তার ছোট ইনিংসে ঝোড়ো ব্যাটিংদেখে টিম ম্যানেজম্যান্ট ও অধিনায়ক অখুশি হওয়ার চেয়ে খুশিই হয়েছেন বেশি।

কারণ একটাই, ছেলেটা হাত খুলে পেটাচ্ছে ডর ভয়হীন।অধিনায়ক মাশরাফি তো ইতোমধ্যে বলেই দিয়েছেন, পিটিয়ে খেলতে গিয়ে আউট হলে বিশেষ সুবিধা পাবেন বিজয়। আর তাতেই নির্ভিকার বিজয়। খেলছেন, মারছেন আর দ্রুত প্যাভিলিয়নে ফিরছেন। তবে তার ছোট সংগ্রহ দলের জয়ে বড় কন্ট্রিভিউট হলেও তিনি কিন্তু ঠিকই অখুশি। তার মাঝে কাজ করছে আক্ষেপ। রোববার (২১ জানুয়ারি)মিরপুরে জিম্বাবুয়ে-শ্রীলঙ্কা খেলা চলাকালীন সময়ে বিসিবির প্রেস কনফারেন্সে বলেন,‘চেষ্টা করি বড় রানের লক্ষ্যে। দুদিন সেট হয়েছি কিন্তু আফসোসের কথা হল, বড় রান করতেপারিনি। তবে চেষ্টা থাকবে বড় স্কোরের। ’দল থেকে নিদের্শ, এনামুল যেন আক্রামণাত্মক ভঙ্গিতে ব্যাটিং করেন।

তবে দলের প্রয়োজনে থিতু হতেওরাজি তিনি। বলেছেন,‘পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলাটাই গুরুত্বপূর্ণ। আমার কাছে মনে হয় ক্যালকুলেটিভ রিস্ক নেয়াটা জরুরি। আমার খেলাটা আমি যেকোনো সময় পরিবর্তন করতে পারব। যদি দেখা যায়, উইকেটে অনেকগুলো তাড়াতাড়ি পড়ে গেছে তখন যতুটুক পারব ক্যারি করার চেষ্টা করব। টি-টোয়েন্টিতে যখন মারতে হবে তখন চেষ্টা করব পাওয়ার প্লেতে মারার। যদি টেস্ট ক্রিকেট হয় তাহলে চেষ্টা করব লম্বা সময় ব্যাটিং করার।’

এ সম্পর্কিত আরও

আপনিও লিখুন .. ফিচার কিংবা মতামত বিভাগে লেখা পাঠান [email protected] এই ইমেইল ঠিকানায়
সারাদেশ বিভাগে সংবাদকর্মী নেয়া হচ্ছে। আজই যোগাযোগ করুন আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুকের ইনবক্সে।