Mountain View

মুক্তাগাছার তিন ‘যুদ্ধাপরাধীর’ বিরুদ্ধে বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার নির্দেশ

প্রকাশিতঃ জানুয়ারি ২১, ২০১৮ at ৬:০১ অপরাহ্ণ

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় ময়মনসিংহ সদর ও মুক্তাগাছা উপজেলার নয় জনের মধ্যে পলাতক তিন আসামিকে আদালতে হাজির হতে জাতীয় দৈনিকে বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবূ্যনাল।

বিচারপতি মো. শাহীনুর ইসলামের নেতৃত্বে তিন সদস্যের বেঞ্চ রোববার এ নির্দেশ দেন। পলাতক তিন আসামি হলেন শমসের ফকির, ফজলুল হক ও সামসুল হক।

প্রসিকিউটর আবুল কালাম বিষয়টি সমকালকে জানিয়ে বলেন, এই ৯ জনের বিরুদ্ধে ফরমাল চার্জ দাখিল করা হয়েছে। তার মধ্যে পলাতক তিনজনকে আদালতে হাজির হতে পত্রিকায় বিজ্ঞপ্তি দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। পরবর্তী আদেশের জন্য ২৮ ফেব্রুযারি দিন ধার্য করা হয়।

২০১৭ সালের ১৯ জুন প্রসিকিউশন থেকে ৯ আসামির বিরুদ্ধে ৯টি অভিযোগ আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবূ্যনালে দাখিল করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় হত্যা, গণহত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন, অপহরণ, আটক, অগ্নিসংযোগসহ আট ধরনের মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগের তদন্ত ২০১৬ সালের ১৭ মে থেকে শুরু হয়ে ২০১৭ সালে ২৯মার্চ শেষ হয়। এরপর তাদেরকে বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। আসামিরা মুক্তিযুদ্ধের সময় আল বদর ও রাজাকার বাহিনীর সদস্য ছিল।

এ মামলায় গ্রেফতার হওয়া ৬ আসামি আব্দুস সালাম মুন্সী, সুরুজ আলী ফকির, জয়েনউদ্দিন ফারুকী, আব্দুর রহিম মাস্টার, জালাল উদ্দিন ও রোস্তম আলীকে রোববার আদালতে হাজির করা হয়।

পলাতকদের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনাল থেকে আগেই গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি রয়েছে। এদের বিরুদ্ধে একাত্তরে মুক্তিযুদ্ধের সময় ১০১ জনকে হত্যা, ১১০-১১২টি বাড়ি অগ্নিসংযোগ, একজনকে ধর্ষণ ও ১২/১৩ জনকে নির্যাতনে গুরুতর আহত করার তথ্য-প্রমাণ পাওয়া গেছে। মামলায় প্রসিকিউশন পক্ষে ৫২ জন সাক্ষী ও জব্দ তালিকার তিনজনসহ মোট ৫৫ জনকে সাক্ষী প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও

আপনিও লিখুন .. ফিচার কিংবা মতামত বিভাগে লেখা পাঠান [email protected] এই ইমেইল ঠিকানায়
সারাদেশ বিভাগে সংবাদকর্মী নেয়া হচ্ছে। আজই যোগাযোগ করুন আমাদের অফিশিয়াল ফেসবুকের ইনবক্সে।