A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ > খেলাধুলা > মাশরফির কাছে দেশ বড় নয়! নিজের জেদ বড়
Mountain View

মাশরফির কাছে দেশ বড় নয়! নিজের জেদ বড়

২০০১ সাল! ক্রিকেট তখন বাংলাদেশে অতোটা জনপ্রিয় না। অাইসিসি ট্রফি জয়লাভের পর এ দেশে জেগে উঠে ক্রিকেট। ফুটবলের পাশাপাশি ক্রিকেট নিয়ে তখন নতুন স্বপ্ন দেখে বাংলাদেশ। অার এই স্বপ্ন পূরন হয় যখন টেস্ট খেলার অনুমতি পায় বাংলাদেশ। অার তখনই ক্রিকেটে জন্ম হয় বাংলাদেশে সর্বকালের সেরা কিংবদন্তীর।

যার নাম মাশরাফি বিন মুর্জতা। নড়াইল থেকে উঠে অাসা সেই যুবক এখন বিশ্বের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার এবং বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা পেস বোলার এবং অধিনায়ক। ২০০১ সালে ৮ নভেম্বর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে অভিষেকের পর এখনো খেলে যাচ্ছেন তিনি। তবে নিজের প্রথম ম্যাচেই অালো ছড়িয়েছিলেন তিনি।

বল হাতে ৪ উইকেট নিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছিলেন মাশরাফি। সেই থেকে শুরু। ক্রিকেটকে তিনি এতটাই ভালোবাসেন যে বারবার ইনজুরিতে পড়ে ৬ বার অস্ত্রপাচার করেও থেমে থাকেন নি তিনি। বাংলাদেশের এই বীর সৈনিক হার মানেনি কনো ইনজুরির কাছে। বার বার ছুটে এসেছেন তিনি ক্রিকেটের টানে। তবে দ্বিতীয় মেয়াদে ক্রিকেটে ফেরেন ২০১২ সালে।

দলের তখন করুন অবস্থা। র্র্যাংকিংয়ে দশে থাকা বাংলাদেশকে রক্ষা করতে অাসলেন চান্দিকা হাথুরুসিংহে। এসেই পুরো দলকে পাল্টে দিলেন তিনি। মুশফিকুর রহিমকে সরিয়ে মাশরাফিকে অধিনায়ক করলেন তিনি। এই একটা সিদ্ধান্তই পাল্টে দিয়েছে বাংলাদেশকে। সে বছর ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়েকে পাত্তাই দেয়নি মাশরাফির বাংলাদেশ।

সেই থেকে শুরু। এরপর ২০১৫ অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপে পুরো বিশ্বকে তাক লাগিয়ে দেয বাংলাদেশ। ইংল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথম বারের মত কোয়াটার ফাইনালে পা দেয় বাংলাদেশ। শুধু তাই নয়। দেশের মাটিতে পাকিস্তানকে বাংলাওয়াশ করে ক্রিকেট বিশ্বে ভূমিকম্প তৈরি করে বাংলাদেশ।

এরপর শক্তিশালী ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়। দক্ষিন অাফ্রিকার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জয়। সব মিলেয়ে দেশের মাটাতে পরাশক্তি হয়ে ওঠে বাংলাদেশ। যার পিছনে মাশরাফির সাথে কোচ হাথুরুসিংহে অবদান কম নয়। ক্রিকেট বিশ্বে সমিহ অাদায় করে নেয় বাংলাদেশ।

এরপর ছাড় পায়নি ইংল্যান্ড। ওয়ানডে সিরিজে নিজেদের ভুলের কারনে ২-১ এ সিরিজ হারলেও প্রথম বারের মত ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টেস্ট জয়লাভ করে বাংলাদেশ। বিদেশের মাটিতে ও অনেকটাই সফল বাংলাদেশ। নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের দেখা না পেলেও লড়াই করেছিলো বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কা সিরিজে টেস্ট জয় করে টেস্ট, টি-টুয়েন্টি এবং ওয়ানডে তিন বিভাগেই সিরিজ সমতা করে বাংলাদেশ। সেই ২০০১ থেকে ২০১৭। ১৬ বছরের ক্যারিয়ারে মাশরাফি পৌঁছে গেছেন ক্রিকেটের সর্বচ্চো চূড়ায়। টেস্ট ক্রিকেট ছেড়েছেন সেই ২০০৯ সালে। কিন্তু হঠাৎ করেই অভিমান করে বসলেন বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা এই ক্রিকেটার।

হঠাৎ করেই টি-টুয়েন্টি থেকে অবসর নিলেন মাশরাফি। যা মেনে নিতে পারেনি দেশের কোটি ক্রিকেট ভক্তরা। প্রধানমন্ত্রী  অনুরোধে ও অার ফিরলেন না তিনি। অনুরোধ করেছিলেন বিসিবি সভাপতি এবং বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব অাল হাসান। কিন্তু অভিমানি মাশরাফি যে তার সিদ্ধান্তে অটুত।

কিন্তু নতুন করে অালোচনায় অাসেন বিপিএলে। বিপিএলের এবারের অাসরে বল হাতে নিয়েছেন ১২ উইকেট। এবং ব্যাট হাতে করেছেন ১৩১ রান। বিপিএলে ম্যান অফ দ্যা টুনামেন্ট হওয়ার অন্যতম দাবিদার মাশরাফি জাতীয় দলে অার ফিরবেন না এটা তিনি পরিস্কার করেই বলেছেন। কিন্তু তখনও মাশরাফি অভিমানী। এবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজে ব্যার্থ বাংলাদেশকে বাঁচাতে মাশরাফির কাছে বিসিবি।

কিন্তু সেখানে অভিমানী মাশরাফি। যেখানে শাহিদ অাফ্রিদী, ফুটবলের সর্বকালের সেরা খেলোয়াড় লিও মেসির মত ক্রিকেটার দেশের জন্য ফিরে এসেছেন। যখন দেশের এই বিপদের দিনে তাকে প্রয়জন তখনও তিনি অভিমান করে বসে অাছেন। তবে কি মাশরফির কাছে দেশ বড় নয়! নিজের জেদ বড়?

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

বিশ্বকাপ ফুটবল – ৩২ দলের তালিকা ও পয়েন্ট টেবিল

গ্রুপ এ দল ম্যাচ জয় হার ড্র গো.ব্য পয়েন্ট রাশিয়া ২ ২ ০ ০ ৭ …