A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ > জাতীয় > মেয়র আনিসুলের চল্লিশায় ‘মধ্যমণি’ পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা
Mountain View

মেয়র আনিসুলের চল্লিশায় ‘মধ্যমণি’ পরিচ্ছন্নতাকর্মীরা

ঢাকা উত্তর সিটি করেপোরেশনের মেয়র আনিসুল হকের মৃত্যুর ৪০ দিনে উত্তরা ও মিরপুরের আঞ্চলিক কার্যালয়ে বিশেষ মিলাদ ও মধ্যাহ্ণভোজের আয়োজন করা হলো। এই আয়োজনটি চল্লিশা নামে পরিচিত।

সোমবার দুপুরে ডিএনসিসির অঞ্চলগুলোতে কর্মরত পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের প্রাধান্য দিয়ে তার পরিবারের পক্ষ থেকে এ আয়োজন করা হয় বলে জানান আনিসুল হকের ছেলে নাভিদুল হক।

সাধারণত কারও মৃত্যুর ৪০ দিন পর তার জন্য দোয়ার আয়োজন করা হয় যা চল্লিশা নামে পরিচিত। তবে সময়-সুযোগের অভাবে কখনও কখনও দেরিতেও করা হয় এমন আয়োজন।
উত্তরায় ডিএনসিসির উত্তরা কমিউনিটি সেন্টার এবং মিরপুরে ১০ নং ওয়ার্ড কমিউনিটি সেন্টারে এই আয়োজন করা হয়।

আগামীকাল মঙ্গলবার মহাখালী ও কাওরান বাজার আঞ্চলিক অফিসে একই ভাবে চল্লিশা অনুষ্ঠানের মিলাদ ও মধ্যাহ্ণভোজের আয়োজন রাখা হয়েছে।

এদিন ওই সব অঞ্চলে কর্মরত ডিএনসিসির পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে।

ডিএনসিসির ৫টি অঞ্চলে মোট প্রায় চার হাজার পরিচ্ছন্নতা কর্মী কর্মরত রয়েছে।
নাভিদুল হক বলেন, ‘আমার পিতা একটি পরিচ্ছন্ন ঢাকা নগরীর স্বপ্ন দেখতেন আর পরিচ্ছন্ন ঢাকা গড়ার জন্য এই পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের নিয়ে তিনি নিরলস কাজ করছেন।’
প্রয়াত আনিসুল হক ওইসব পরিচ্ছন্ন কর্মীদের খুব ভালোবাসতেন জানিয়ে নাভিদুল বলেন, ‘বাবার প্রতি সম্মান জানিয়ে তাঁর মৃত্যুর পর সবাই (পরিচ্ছন্ন কর্মীরা) যেভাবে অতিরিক্ত এক ঘন্টা কাজ করছেন। এতে বুঝা যায় তারা তাঁকে অন্তর থেকে সম্মান জানাতেন।’

পরিচ্ছন্ন কর্মীদের সম্মান জানাতেই মেয়র আনিসুলে পরিবারের পক্ষ থেকে চল্লিশার আয়োজন করা হয় বলে জানান আনিসুলপুত্র।
উত্তরায় আয়োজিত অনুষ্ঠানের প্রয়াত মেয়রের স্ত্রী রুবানা হকসহ স্থানীয় কাউন্সিলর এবং ডিএনসিসির শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

আনিসুল হক গত ৩০ নভেম্বর লন্ডনের একটি হাসপাতালে মারা যান। ২ ডিসেম্বর ঢাকায় বনানী করবস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়।
২০১৫ সালের এপ্রিলের ভোটে নির্বাচিত হওয়ার পর ঢাকা উত্তরে নগরজীবন পাল্টে দিতে আনিসুল হক বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছিলেন।

এর মধ্যে বেশ কিছু কাজ শুরু হয়েছে, বেশ কিছু কাজ পরিকল্পনার পর্যায়ে আছে। অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ, ফুটপাত চওড়া, বিদেশি দূতাবাসের দখল থেকে ফুটপাত উদ্ধারসহ বেশ কিছু কাজের জন্য আনিসুল হক প্রশংসা পেয়েছেন।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

খালেদা জিয়ার জামিন বিষয়ে আদেশ রোববার

কুমিল্লায় বাসে অগ্নিসংযোগ করে হত্যার অভিযোগে করা মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের ওপর শুনানি …