A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ > অন্যান্য > হেরেও জয়ী নিউজিল্যান্ড,জিতেও হার ইংল্যান্ডের
Mountain View

হেরেও জয়ী নিউজিল্যান্ড,জিতেও হার ইংল্যান্ডের

‘শেষ ভালো যার, সব ভালো তার’ প্রবাদটা ইংল্যান্ডের ক্ষেত্রে অন্তত খাটছে না। ত্রিদেশীয় টি ২০ সিরিজে টানা তিন হারের পর লীগ পর্বের শেষ ম্যাচে আরাধ্য জয় পেল ইংল্যান্ড। কিন্তু টানটান উত্তেজনার ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই রানের নাটকীয় জয়েও সব ভালো হয়ে যায়নি তাদের! লড়াইয়ে হারলেও ‘যুদ্ধে’ জিতে শেষ হাসি হাসল নিউজিল্যান্ডই।

জিতেও ছিটকে পড়ল ইংল্যান্ড। আর হেরেও ফাইনালে চলে গেল কিউইরা। রোববার হ্যামিল্টনে ফাইনালে ওঠার সমীকরণ মাথায় রেখে মুখোমুখি হয়েছিল দুই ‘ল্যান্ড’।

আগের তিন ম্যাচে একটি জয় থাকায় শেষ ম্যাচে যেকোনো ব্যবধানে জিতলেই চলত নিউজিল্যান্ডের। অন্যদিকে নেট রান রেটে পিছিয়ে থাকায় ইংল্যান্ডকে ন্যূনতম ২০ রানে জিততে হতো। আগে ব্যাটিংয়ে নেমে সাত উইকেটে ১৯৪ রানের বড়সড় স্কোর গড়ে ফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রেখেছিল ইংলিশরা।

৪৬ বলে অপরাজিত ৮০ রানের দারুণ একটি ইনিংস খেলেন অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যান। এছাড়া ডেভিড মালান করেন ২৬ বলে ৫৩। ব্যাটসম্যানদের গড়ে দেয়া ভিতের ওপর দাঁড়িয়ে শেষপর্যন্ত জয় মুঠোবন্দি করলেও ২০ রানের সমীকরণ মেলাতে পারেননি ইংলিশ বোলাররা। বিশাল লক্ষ্য তাড়ায়

ঝড়ো শুরুর পর শেষ ওভারে জয়ের জন্য নিউজিল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১২ রান। কিন্তু টম কারানের ওই ওভার থেকে মাত্র নয় রান নিতে পারেন গ্র্যান্ডহোম ও মার্ক চ্যাপম্যান।

জেতার জন্য মরিয়া চেষ্টাই হয়তো করেননি দুই কিউই ব্যাটসম্যান! ১৯তম ওভারেই যে তাদের ফাইনালের সমীকরণ মিলে গিয়েছিল। যাতে সবচেয়ে বড় অবদান কলিন

মানরোর। মাত্র ২১ বলে ৫৭ রানের খুনে ইনিংস খেলে দলকে বিস্ফোরক শুরু এনে দেন তিনি। ফিফটি ছুঁয়েছেন ১৮ বলে। আরেক ওপেনার মার্টিন গাপটিল ৪৭ বলে করেন ৬২ রান। দুই ওপেনারের বিদায়ের পর রান তোলার গতি কমে যাওয়ায় চার উইকেটে ১৯২ রানে আটকে যায় কিউইরা। বুধবার ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার মুখোমুখি হবে নিউজিল্যান্ড। এএফপি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ইংল্যান্ড ১৯৪/৭, ২০ ওভারে (জেসন রয় ২১, ডেভিড মালান ৫৩, ইয়ন মরগ্যান ৮০*। ট্রেন্ট বোল্ট ৩/৫০, টিম সাউদি ২/২২)।

নিউজিল্যান্ড ১৯২/৪, ২০ ওভারে (মার্টিন গাপটিল ৬২, কলিন মানরো ৫৭, মার্ক চ্যাপম্যান ৩৭*।

আদিল রশিদ ১/২২)।

ফল : ইংল্যান্ড ২ রানে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : ইয়ন মরগ্যান (ইংল্যান্ড)।

এ সম্পর্কিত আরও

Best free WordPress theme

Check Also

বাংলাদেশের হয়ে ৬৩ ও ৬৮ বলে ২টি সেঞ্চুরী সাকিবের

জুবায়ের আহমেদ: বাংলাদেশ ক্রিকেটে দ্রুততম রানের হিসেবে করতে গেলে মোহাম্মদ আশরাফুলের তিনফরম্যাটে দ্রুততম ফিফটি কিংবা …