A huge collection of 3400+ free website templates JAR theme com WP themes and more at the biggest community-driven free web design site
প্রচ্ছদ > ক্যাম্পাস > ইবির শেখ হাসিনা হলে নেই নেট ব্রডব্যান্ড সংযোগ
Mountain View

ইবির শেখ হাসিনা হলে নেই নেট ব্রডব্যান্ড সংযোগ

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির এ যুগে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের শিক্ষার্থীরা ওয়াইফাই সুবিধা থেকে বঞ্চিত, নেই ব্রডব্যান্ড নেট সংযোগ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য সকল আবাসিক হলে অনেকদিন আগে থেকেই ওয়াইফাই সুবিধা দেয়া হলেও ডিজিটাল বাংলাদেশের রুপকার, উন্নয়নশীল বাংলাদেশের অগ্রদূত শেখ হাসিনা এর নামে নামকৃত দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলের ছাত্রীরা ওয়াইফাই সুবিধা থেকে বঞ্চিত হওয়ায় তাঁরা বৈষম্যের স্বীকার হচ্ছে বলে দাবি করছেন হলের আবাসিক ছাত্রীরা।

দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ডিজিটাল সুবিধা পোঁছে গেলেও বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরা তা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এতে তাঁদের অনলাইন শিক্ষা ব্যহত হচ্ছে বলে জানান তাঁরা।

তাঁরা আরো জানান, শিক্ষার্থীরা গবেষণার জন্য কোন তথ্য খোঁজে না পেলে ই-লাইব্রেরীর মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করে খোঁজে বের করে। বর্তমানে শিক্ষার্থীদের শুধু পাঠ্যবই নির্ভর হলেই হয় না জ্ঞান-বিজ্ঞান বিষয়ক বই শিক্ষার্থীদের প্রয়োজন হয়। এ জাতীয় বই ইন্টারনেট থেকে ডাউনলোড করা যায়। এসকল সুবিধা থেকে আমরা বঞ্চিত হচ্ছি। এছাড়াও অনলাইনে ই-লার্নিংয়ের জন্য ডাটা ক্রয়ের খরচ বাবদ গুনতে হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা।

আবাসিক শিক্ষার্থী সূত্রে জানা যায়, হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ মিজানুর রহমান এর কাছে সরাসরি অভিযোগ দেয়া হলে খুব দ্রুত তিনি ওয়াইফাই সংযোগের আশ্বাস দেন। বারংবার এমন আশ্বাস দেয়ার পরেও বাস্তবায়িত হচ্ছেনা কোন কাজের অগ্রগতি। আগামী মাস, আগামী মাস বলে বছর পার করে দিচ্ছেন বলেও জানা যায়।

শেখ হাসিনা হলের আবাসিক ছাত্রী মিস জেরী বলেন, “আমাদের হলে ওয়াইফাই নেই এ জন্য আমরা বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছি। অনেক সময় এমবি কিনলে হঠাৎ করে এমবি শেষ হয়ে যায়, পরিপূর্ণ তথ্য পেতে সমস্যায় পড়তে হয়। আমার জানামতে পাবলিক ভার্সিটির অধিকাংশ ছেলেমেয়েই মধ্যবিত্ত পরিবারের। তাদের পক্ষে নিয়মিত টাকা দিয়ে এমবি কিনে এসাইনমেন্ট, ইনফোরমেশন, এক্সপ্লেনেশন গেদার করা অনেকটাই কষ্টসাধ্য। ক্যাম্পাস এর সব হলগুলোতেই ওয়াইফাই আছে আর দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে নেই এটা খুবই দুঃখজনক ব্যাপার”।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক ছাত্রী বলেন, ওয়াইফাই না থাকার কারনে ডাটা কিনে অতিরিক্ত টাকা খরচ হচ্ছে। এছাড়া অনলাইনে লেখাপড়া করতে পারছি না। এ বিষয়ে স্যারকে বহুবার অভিযোগ দেয়া হয়েছে কিন্তু তারপরেও ওয়াইফাই সংযোগ পাচ্ছি না।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, হলে নেট কানেকশনের জন্য আবেদন করেছি। নেট কানেকশন বাবদ ১৬ হাজর ৫০০ টাকা আজ (রবিবার) জমা দিব। কর্তৃপক্ষ হলে নেট কানেকশন দেয়ার পর দুদিনের মধ্যেই আমি রাউটার লাগিয়ে দিব। প্রত্যেক তলায় নতুন ও পুরাতন ব্লকে পাঁচটি করে মোট ১০টি রাউটার লাগানো হবে।

এ সম্পর্কিত আরও

Check Also

কারণ দর্শানোর নামে ছাত্রীদের হয়রানি না করার আহ্বান

নিউজ ডেস্ক,বিডি টোয়েন্টিফোর টাইমসঃ কোটা সংস্কারের দাবিতে চলমান আন্দোলনের মধ্যে গত ১০ এপ্রিল মধ্যরাতে ঢাকা …