ভারতীয়দের দখলে ফাইনালের টিকেট, এক টিকেটের দাম ১৬ লাখ

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের শুরু থেকে আলোচনায় ছিল ভারতের নাম। রীতিমতো ফেভারিট তকমা নিয়েই বিশ্বকাপের এবারের আসরের অংশ নিয়েছিল দলটি। মাঠের পারফরম্যান্সেও দেখা যাচ্ছিল সেই ছাপ। লিগ পর্বের মাত্র একটি ম্যাচ ছাড়া বাকি সবগুলোতেই জয়ের স্বাদ নিয়ে সেমিফাইনালে পা রাখে বিরাট কোহলির দল। ধোনি-কোহলিদের এমন দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে ভক্ত-সমর্থকরা যেন ধরেই নিয়েছিলেন ফাইনালে উঠছে ভারত। সেই অনুমান থেকে ফাইনালের অধিকাংশ টিকেট আগাম কিনে রেখেছিলেন তারা।

কিন্তু বিধি বাম! বিশ্বকাপের শুরু থেকে দুর্দান্ত খেলতে থাকা ভারতকে সেমিফাইনালে যেন খুঁজেই পাওয়া যায়নি। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে শেষ চার থেকে বিদায় নিয়েছে রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, লর্ডসে অনুষ্ঠিতব্য ফাইনালের শতকরা ৪১ ভাগ টিকেট এখনও ভারতীয় সমর্থকদের দখলে।

কিন্তু বিশ্বকাপ থেকে ভারত বাদ পড়ায় ৪১ শতাংশ সমর্থকের অনেকেই ফাইনাল দেখতে মাঠে যাবেন না। আবার চাইলেই টিকেট ফিরিয়ে দেওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন না ভারতের সমর্থকরা। টিকেট ফিরিয়ে দিতে হলে ওই সমর্থককে ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) ওয়েবসাইটে নিবন্ধিত থাকতে হবে এবং অন্য সমর্থকদের চাহিদার ওপর নির্ভর করতে হবে। এত নিয়ম-কানুন মেনে অবশ্য আইসিসির ওয়েবসাইট থেকে টিকেট বিক্রি করতে আগ্রহী নন ভারতীয় সমর্থকরা।

এমনকি আইসিসির এক মুখপাত্রও জানিয়েছেন, টিকেট পুনর্বিক্রির প্ল্যাটফর্মে তেমন একটা ব্যস্ততা নেই। কিন্তু ফাইনালের টিকেট বিক্রি হচ্ছে ঠিকই। তবে সেই টিকেটের দাম হাঁকানো হচ্ছে নির্ধারিত দামের কয়েক গুণ বেশি, কোনো কোনো ক্ষেত্রে সেটা ১৬ লাখ রুপি পর্যন্ত গিয়ে ঠেকছে। ভারত বিশ্বকাপের ফাইনালে না ওঠায় দেশটির অনেক সমর্থকই সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ও টিকেট বিক্রির ওয়েবসাইটে টিকেট বিক্রি করে দিচ্ছেন। ভারতীয় ভক্ত-সমর্থকদের কাছ থেকে এসব টিকেট চড়া দামে কিনে নিচ্ছে ভায়াগোগো নামের একটি ওয়েবসাইট।

তাদের কাছ থেকে এই টিকেট আরও চড়া দামে কিনে নিচ্ছেন অনেক ভক্ত-সমর্থক। কিন্তু শেষ মুহূর্তে একেকটি টিকেটের দাম হাঁকানো হচ্ছে ১৪ লাখ থেকে ১৬ লাখ রুপি পর্যন্ত, যা নির্ধারিত দামের চেয়ে প্রায় ৫০ গুণ বেশি! টিকেটের আকাশচুম্বী দামে বিপাকে পড়েছেন নিউজিল্যান্ডের ভক্ত-সমর্থকরা। হাতের কাছে পেয়েও চড়া দামের জন্য টিকেট কেনা প্রায় অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *